ঢাকা, শনিবার   ১৫ মে ২০২১, || চৈত্র ৩১ ১৪২৮

পুলিশ সুপারের দুঃখপ্রকাশ, সাংবাদিকদের কর্মসূচি প্রত্যাহার

জয়পুরহাট প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৫:১৯, ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯

জয়পুরহাট প্রেসক্লাবের সিনিয়র সাংবাদিকদের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণের ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করেছেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সালাম কবির। সেইসঙ্গে জেলার আইন শৃঙ্খলার উন্নয়নে সাংবাদিকদের সঙ্গে নিয়ে কাজ করার ঘোষণ দিয়েছেন তিনি।

বুধবার বেলা ১১টায় জয়পুরহাট প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের নিয়ে পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সমঝোতা বৈঠকে তিনি এ ঘোষণা দেন।

এ সময় তিনি আরও বলেন, গোয়েন্দা পুলিশ কর্তৃক ছাত্রলীগ নেতাকে পেটানোর ঘটনায় এত বেশি পরিমাণ ফোন আসায় ‘ডিস্টার্ব ফিল’ থেকে সিনিয়র সাংবাদিকদের সঙ্গে অনাকাঙ্খিত ওই ঘটনা ঘটেছে। পরবর্তীকালে যেন এ ধরণের ঘটনা না ঘটে সে বিষয়ে অবশ্যই সতর্ক থাকা হবে।

বৈঠকে আলোচনার পর সম্মানজনক সমঝোতা হওয়ায় পুলিশ সুপারের সংবাদ বর্জনসহ সাংবাদিকদের ঘোষিত সব কর্মসূচি প্রত্যাহার করা হয়।

সমঝোতা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) উজ্জল কুমার রায়,সহকারি পুলিশ সুপার সাজ্জাদ হোসেন, জয়পুরহাট পৌরসভার মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক, গোয়েন্দা পুলিশ কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম, মমিনুল হক, জয়পুরহাট প্রেসক্লাবের সভাপতি মোস্তাকিম ফাররোখ, সহ-সভাপতি আবু বকর সিদ্দিক, সাধারণ সম্পাদক রতন কুমার খাঁ, সাংবাদিক তপন কুমার খা, শাহজাহান সিরাজ মিঠু, আলমগীর চৌধুরী, আব্দুর রহমান রনি, আব্দুল আলীম, সাহাদুল ইসলাম সাজু, মাহমুদুল ইসলাম, নজরুল ইসলাম, আবু মুসা, মাশরেকুল আলম, রবিউল ইসলাম রুবেল, শাহিদুল ইসলাম সবুজ, জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম প্রমুখ। 

প্রসঙ্গত, আসামি ধরতে গিয়ে জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পাদক জহুরুল ইসলামকে গত রোববার বিকালে পিটিয়ে আহত করে জয়পুরহাটের গোয়েন্দা পুলিশ। এ ঘটনায় স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীরা বক্তব্য নিতে গেলে পুলিশ সুপার অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন।


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি