ঢাকা, শনিবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২০, || মাঘ ৫ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

বাঁহাতি স্পিনার ছাড়াই নামছে বাংলাদেশ!

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৯:০৭ ৩ নভেম্বর ২০১৯

মাস্ক পরে অনুশীলনে বাংলাদেশ দলের কয়কজন সদস্য

মাস্ক পরে অনুশীলনে বাংলাদেশ দলের কয়কজন সদস্য

উপমহাদেশের ক্রিকেট মানেই স্পিন, টার্নের সমাহার। আর খেলাটা যদি হয় ভারতে তাহলে তো আর বলার অপেক্ষাই রাখে না। দেশটির যে মাঠেই খেলা হোক না কেন, ভারতের মাঠে খেলা মানেই একটু আধটু বল টার্ন করা। অর্থাৎ স্পিনারদের স্বর্গরাজ্য।তবে স্বাগতিকদের বিপক্ষে নিজেদের একাদশে বাড়তি স্পিনার অন্তর্ভুক্ত করে সাফল্যের আশা করাটা নিতান্তই বোকামি।

কেননা, ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের স্পিনে কাবু করাটা অলীক কল্পনা মাত্র। কারণ জাতীয় দলে সুযোগ পাবার আগেই ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা নিজেদের হাতটা ভালোভাবেই পাকিয়ে ফেলেন মায়াবি স্পিন খেলেই। রোহিত শর্মা, শিখর ধাওয়ান, লোকেশ রাহুল আর রিষভ পান্টরা তাই বিশ্বের যে কোনও স্পিনারকেই ঘরের মাঠে স্বচ্ছন্দে খেলে ফেলেন। তাদের বিপক্ষে তাই বাড়তি স্পিনার নিয়ে খেলতে নামা রীতিমত ঝুঁকির শামিল।

তাহলে ভারতের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে কেমন হচ্ছে বাংলাদেশের একাদশ? যতদূর জানা গেছে, আজ (৩ নভেম্বর) রোহিত শর্মাদের বিপক্ষে স্পিন নির্ভরতা কমিয়েই মাঠে নামতে যাচ্ছে টিম বাংলাদেশ। দলে যে দুজন বাঁহাতি স্পিনার আছেন-সেই তাইজুল আর আরাফাত সানির কেউই থাকছেন না আজকের একাদশে। 

এদিন দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করেন দলের সঙ্গে থাকা প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু। লাঞ্চের আগের টিম মিটিংয়ে দল চূড়ান্ত হয়েছে বলেই জানিয়েছেন তিনি।

নান্নুর দেয়া এই দলে নেই- মোহাম্মদ মিঠুন, বাঁহাতি পেসার আবু হায়দার রনি ও দুই বাঁহাতি স্পিনার তাইজুল ইসলাম আর আরাফাত সানি। ফলে আজ মাঠে দেখা যাবে না বাংলাদেশের কোনও বাঁহাতি স্পিনারকে।

অর্থাৎ জেনুইন স্পিনার হিসেবে একাদশে থাকছেন লেগস্পিনার আমিনুল ইসলাম বিপ্লব। আর আগেই জানা গেছে যে, এদিন অভিষেক হচ্ছে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ নাইম শেখের। সঙ্গে থাকছেন লিটন দাস, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহীম, অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ, আফিফ হোসেন ধ্রুব আর মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। 

এভাবেই ব্যাটিংটাকে যতটা সম্ভব সমৃদ্ধ, শক্ত আর লম্বা করে একাদশ সাজানো হয়েছে। যেখানে বোলারদের ভেতরে তিন পেসারের পাশাপাশি নির্ভর করা হচ্ছে লেগি বিপ্লবের ওপর।

বরাবরের মতোই ভারতীয় ব্যাটিং অনেক সমৃদ্ধ, শক্তিশালী। তাই তাদের বিপক্ষে স্পেশালিস্ট স্পিনার কমিয়ে পেসার রাখা হয়েছে তিনজন-মোস্তাফিজ, শফিউল ও আল আমিনকে। 

অন্যদিকে, লেগস্পিনার আমিনুল ইসলাম বিপ্লব তো আছেনই। সঙ্গে অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ, মোসাদ্দেক আর আফিফও হয়তো হাত ঘোরাবেন। বিপ্লবের ৪ ওভারের পর তারা তিন অফস্পিনার মিলে বোলিং করে দেবেন অন্তত আরও ৬ থেকে ৮ ওভার। আর তিন পেসারের কেউ একজন মার খেলেও তখন ক্যাপ্টেনকে কোনও সমস্যায় পড়তে হবে না ২০ ওভারের কোটা পূরণ করতে।

তাহলে, প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশটা দাঁড়াচ্ছে: 
লিটন দাস, নাইম শেখ, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), মোসাদ্দেক হোসেন, আফিফ হোসেন, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, শফিউল ইসলাম, মোস্তাফিজুর রহমান ও আল আমিন হোসেন।

এনএস/

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি