ঢাকা, বুধবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২০, || অগ্রাহায়ণ ১৮ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

বার্সার মাঠে রিয়ালের রোমাঞ্চকর ক্লাসিকো জয়

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:৪৩ ২৫ অক্টোবর ২০২০

দর্শকবিহীন ক্যাম্প ন্যুতে এল ক্লাসিকোর শুরু থেকেই কী তুমুল উত্তেজনা! নতুন মৌসুমের টানা দুই ম্যাচ হেরে বসা লস ব্লাঙ্কোসরা চির প্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনার বিপক্ষে মাঠে নামতেই যেন বদলে গেল। ৫ মিনিটের মাথায়ই রিয়াল মাদ্রিদের দাপুটে আক্রমণ। জালের ঠিকানা মিলল। এর তিন মিনিট পর সমতায় ফিরলো বার্সাও। এরপর চললো রোমাঞ্চকর এক লড়াই, যেখানে রিয়ালের বিপক্ষে পেরে উঠলো না মেসির দল। 

শনিবার ন্যু ক্যাম্পে বার্সেলোনাকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। দলটির পক্ষে একটি করে গোল করেছেন ফেদেরিকো ভালভার্দে, সার্জিও রামোস ও লুকা মদ্রিচ। বার্সার পক্ষে একটি গোল পরিশোধ করেন আনসু ফাতি। এল ক্লাসিকোতে বার্সার বিপক্ষে টানা দুই ম্যাচ জিতল রিয়াল। এর আগের ম্যাচে ২-০ গোলে জিতেছিল লস ব্লাঙ্কোসরা।

এই ম্যাচের আগে মানসিকভাবে পিছিয়েই ছিল রিয়াল। লা লিগায় কাদিসের বিপক্ষে হারের পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও হতাশা সঙ্গী হয় তাদের। শাখতার দোনেস্কের দ্বিতীয় সারির দলের বিপক্ষে ৩-২ গোলে হেরে যায় রিয়াল। লা লিগায় বার্সেলোনা হারলেও চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ফেরেন্সভারোসের বিপক্ষে ৫-১ গোলের বড় জয়ে ছন্দে ফেরার আভাস দেয় কাতালানরা। এ নিয়েও কম চিন্তা ছিল না রিয়ালের। 

জিদানের দলের এই জয় তুলে নেওয়া অতটা সহজ হয়নি। শুরু থেকেই রোমাঞ্চকর এক লড়াই উপভোগ করেছেন দর্শকেরা। ম্যাচের প্রথম ৮ মিনিটেই দুই দলের একটি করে গোল আদায় করা। দুই দলেরই প্রায় সমানে সমান বল দখলে রেখে খেলা। (বার্সার ৫২ শতাংশ, রিয়াল ৪৮ শতাংশ)। যে লড়াইয়ে জয়-পরাজয় নির্ধারণ হয়েছে মূলত শেষ দিকে রিয়ালের দৃঢ়তায়। আর কিছু সুযোগ কাজে লাগাতে না পারায় পিছিয়ে পড়েন মেসিরা।

ম্যাচের ৫ মিনিটে করিম বেনজেমার বাড়িয়ে দেওয়া বল ডি-বক্সের মুখ থেকে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে দারুণ দক্ষতায় তা জালে জড়িয়ে দেন ফেদেরিকো ভালভার্দে। তবে এর তিন মিনিটের মাথায় আনসু ফাতির দুর্দান্ত ফিনিশিংয়ে সমতায় ফিরে বার্সা। এই গোলের মাধ্যমে দারুণ এক রেকর্ড গড়েছেন ফাতি। এল ক্লাসিকোতে সবচেয়ে কম বয়সে গোল করার কীর্তি এই ১৭ বছর বয়সীর।

২৪ মিনিটে এগিয়ে যেতে পারত রিয়াল। কিন্তু দারুণ এক সুযোগ হাতছাড়া করেন বেনজেমা। এর ঠিক আগ মুহূর্তেই লিওনেল মেসির শট দারুণ দক্ষতায় ঠেকিয়ে দেন রিয়াল গোলরক্ষক কোর্তোয়া। ১-১ সমতায় বিরতিতে যায় দুই দল।

বিরতির পরও আক্রমণ, পাল্টা আক্রমণে জমে উঠে ম্যাচ। খেলার ৫২ মিনিটে মেসির পাস ধরে রিয়ালের ডি-বক্সে বিপদজনক ভাবে ঢুকে পড়েছিলেন ফাতি। তবে রামোসের কৌশলের কাছে পরাস্ত হতে হয় তাকে। যদিও দূরের পোস্ট লক্ষ্য রেখে শট নিয়েছিলেন। তবে সেটি চলে যায় বাইরে দিয়ে।

ম্যাচের ৬২ মিনিটে বড় ধাক্কা খায় বার্সা। রামোসকে টেনে ধরেছিলেন লংলে। রেফারি পোনাল্টির বাঁশি বাজান রিয়াল মাদ্রিদের পক্ষে। স্পট কিক থেকে গোল করতে ভুল করেননি রামোস। ২-১ এ এগিয়ে যায় জিদানের দল।

এদিন লুকা মদ্রিচকে শুরুর একাদশে নামাননি কোচ জিদান। ৬৯ মিনিটে ম্যাচের প্রথম গোলদাতা ভালভার্দের বদলি হিসেবে মদ্রিচকে নামান তিনি। শেষ পর্যন্ত মদ্রিচের গতির কাছেই যেন হার মানে বার্সা।

৮৫ মিনিটে দুই দফায় বার্সাকে নিশ্চিত গোলের হাত থেকে বাঁচিয়েছিলেন গোলরক্ষক নেতো। কিন্তু পারেননি ৮৯ মিনিটেরটা, লুকা মদ্রিচ গোল করেন ব্যবধান ৩-১ করেন। ভিনিয়ুস জুনিয়রকে থামাতে পারলেও নোতোকে ঠিকই ফাঁকি দেন মদ্রিচ। আর এর মধ্য দিয়ে এল ক্লাসিকোতে হারের বেদনায় ডুবলো রোনাল্ড কোম্যানের দলটি।

মৌসুমের প্রথম এল ক্লাসিকো হারে লা লিগায় বার্সার ব্যর্থতার ঝুলিতে জমা হলো টানা দুই হার। এই হারে পয়েন্ট টেবিলে আরও পিছিয়ে গেছে কোম্যানের দল। ৫ মাচে ২ জয়ে ৭ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার ১২ নম্বরে বার্সেলোনা। অন্যদিকে রিয়াল উঠে গেছে শীর্ষে। ৬ ম্যাচে ৪ জয়ে ১৩ পয়েন্ট জিদানের দলের।
এএইচ/
 


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি