ঢাকা, শনিবার   ১৬ নভেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

ভারতকে হারাতে সাকিব-তামিমকেই চাইলেন স্মিথ-লক্ষণ!

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২২:৫০ ২০ অক্টোবর ২০১৯ | আপডেট: ২২:৫৩ ২০ অক্টোবর ২০১৯

সম্প্রতি প্রোটিয়াদের নিয়ে তো রীতিমতো ছেলে খেলা শুরু করেছে ভারত। বিশাখাপট্টম ও পুনে টেস্টে সফরকারীদের পাত্তাই দেয়নি কোহলি-রোহিতরা। আর রাঁচিতে অনুষ্ঠিত চলমান তৃতীয় টেস্টে দেখা যাচ্ছে সেই একই চিত্র। ম্যাচটির প্রথম দুই দিনেই যে চালকের আসনে বসে পড়েছে বিরাট কোহলির দল।

রোববার রোহিত শর্মার ডাবল সেঞ্চুরি আর রহানের অনবদ্য শতকে ৯ উইকেটে ৪৯৭ করে ইনিংস ঘোষণা করে স্বাগতিক দল। জবাবে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ৮ রানেই দুই ওপেনারকে হারিয়ে বসে দক্ষিণ আফ্রিকা। এলগারকে (০) শামি আর ডি কককে (৪) তুলে নেন উমেশ যাদব। যাতে আরও একটা একতরফা টেস্ট হতে চলেছে রাঁচিতে। 

এ রকম একতরফা সিরিজ দেখতে দেখতে হয়তো হাঁপিয়েই উঠেছেন স্টার স্পোর্টসের দুই ধারাভাষ্যকার গ্রায়েম স্মিথ ও ভিভিএস লক্ষণ! এমনটা তো হওয়ারই কথা। কেননা, সেই ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে সর্বশেষ টেস্ট হারে ভারত। 

পুনের সেই টেস্টে ভারতকে একাই হারিয়ে দিয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার এক অচেনা স্পিনার স্টিভ ও’কিফ। যে ম্যাচের দুই ইনিংসে (৬+৬) ১২ উইকেট নিয়ে একাই ধসিয়ে দিয়েছিলেন কোহলি বাহিনীকে। যাতে ৩৩৩ রানের বিশাল জয় পায় অস্ট্রেলিয়া। হ্যাঁ, সেটাই ছিল দেশের মাটিতে টেস্টে ভারতের সর্বশেষ হার। আরেকটু পরিষ্কার করে বললে, গত ৩২ টেস্টে পুনের সেই ম্যাচটাই ছিল ভারতের একমাত্র পরাজয়ের ম্যাচ।

তাইতো এদিন (রোববার) ধারাভাষ্যের ফাঁকেই ভারতকে তাদের মাটিতে হারাতে পারে এমন একটা বিশ্বমানের দল নির্বাচন করে ফেলেন ওই দুই ধারাভাষ্যকার। যে দলে রাখা হয়েছে বাংলাদেশের দুই সেরা তারকা তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসানকে।

প্রোটিয়া ওপেনার ডিন এলগারের সঙ্গে ওপেনিংয়ে রাখা হয়েছে তামিমকে। ভারতের টার্নিং উইকেটের কথা বিবেচনা করেই মূলত সাজানো হয়েছে একাদশটি। যেখানে রয়েছেন সাবেক অজি ক্যাপ্টেন স্টিভেন স্মিথ, কিউই ক্যাপ্টেন কেন উইলিয়ামসন ও ইংলিশদের নায়ক বেন স্টোকস। 
যদিও এ দলে জায়গা হয়নি ইংলিশ টেস্ট ক্যাপ্টেন জো রুটের। আর পাকিস্তান দল থেকে আছেন সে দেশের সেরা তারকা বাবর আজম। উইকেটরক্ষক হিসেবে রাখা হয়েছে যথারীতি আরেক প্রোটিয়া কুইন্টন ডি কককে।

এদিকে টাইগার সেরা সাকিবকে স্পিন অলরাউন্ডার হিসেবে রাখলেও দলটিতে মূল স্পিনার হিসেবে রাখা হয়েছে নাথান লায়নকে। অন্যদিকে পেস আক্রমণে রাখা হয়েছে অজি পেসার প্যাট কামিন্স আর ইংলিশ স্পিড স্টার জোফরা আর্চারকে।

ভারতের বিপক্ষে গ্রায়েম স্মিথ ও ভিভিএস লক্ষণের সাজানো বিশ্ব একাদশ: 
ডিন এলগার (দক্ষিণ আফ্রিকা), তামিম ইকবাল (বাংলাদেশ), কেন উইলিয়ামসন (নিউজিল্যান্ড), স্টিভেন স্মিথ (অস্ট্রেলিয়া), বাবর আজম (পাকিস্তান), সাকিব আল হাসান (বাংলাদেশ), বেন স্টোকস (ইংল্যান্ড), কুইন্টন ডি কক (উইকেটরক্ষক), প্যাট কামিন্স (অস্ট্রেলিয়া), নাথান লায়ন (অস্ট্রেলিয়া) ও জোফরা আর্চার (ইংল্যান্ড)। 

এনএস/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি