ঢাকা, শনিবার, ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯ ০:১৩:১০

Ekushey Television Ltd.
শ্লীলতাহানির মামলা

রোনালদোর ডিএনএ চেয়েছে পুলিশ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১১:০৯ এএম, ১২ জানুয়ারি ২০১৯ শনিবার

শ্লীলতাহানির মামলায় এবার আরও সমস্যায় ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। জুভেন্টাসের ফরোয়ার্ডের বিপক্ষে ওঠা ধর্ষণের অভিযোগের তদন্তের অংশ হিসেবে তার ডিএনএ নমুনা চেয়ে পরোয়ানা জারি করেছে লাস ভেগাসের পুলিশ।

গত বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে লাস ভেগাস মেট্রোপলিটন পুলিশ বিভাগ নিশ্চিত করে। ধর্ষণের অভিযোগকারী ক্যাথরিন মায়োরগার পোশাকে পাওয়া ডিএনএ’র সঙ্গে পর্তুগিজ ফরোয়ার্ডের ডিএনএ’র মিল আছে কি না দেখতে চায় তারা। ইতালির বিচারিক কর্তৃপক্ষের কাছে পরোয়ানা পাঠানো হয়েছে।

পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী তার উপর আসা এই অভিযোগ অস্বীকার করে এসেছেন। তার উকিল পিটার ক্রিস্টিয়ানসেন জানান, এটা স্বাভাবিক অংশ তদন্তের। তিনি বলেন, ‘রোনালদো সব সময়ই তার একটাই মত দিয়ে আসছে। যেটা আজ বলছে। ২০০৯ সালে লাস ভেগাসে যেটা হয়েছিল সেটা দু’জনের সম্মতিতেই হয়েছিল। আর এটা অস্বাভাবিক নয় যে পুলিশ ডিএনএ-এর নমুনা চাইছে।’

লাস ভেগাস মেট্রোপলিটন পুলিশ জানিয়েছে, এই তথ্য তারা স্থানীয় পুলিশকে জানিয়ে দিয়েছে। লাস ভেগাসের প্রাক্তন মডেল ৩৪ বছরের ক্যাথরিন মায়োরগা রোনালদোর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন।

তার দাবি, তিনি রোনালদোর সঙ্গে লাস ভেগাসের এক নাইট ক্লাবে আলাপ হয়। এবং তার হোটেলের ঘরে এই মডেলের শ্লীলতাহানি করেন রোনালদো। সেটা ২০০৯ সালে ১৩ জুন। তার পরই তিনি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে রিয়েল মাদ্রিদে যোগ দেন ৯৪ মিলিয়ন ইউরোর পরিবর্তে।

সঙ্গে সঙ্গেই তিনি পুলিশকে জানিয়েছিলেন কিন্তু রোনালদো তার মুখ বন্ধ করার জন্য ৩ লাখ ৭৫ হাজার ডলার দেন। রোনালদোর উকিলের মতে, আদালতের বাইরে বিষয়টি মিটিয়ে নিতে রাজি হয়েছিলেন সেই মডেল। কিন্তু তিনি তার কথা রাখেননি।

একে//

ফটো গ্যালারি



© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি