ঢাকা, সোমবার   ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, || আশ্বিন ১১ ১৪২৮

ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে দেড় লাখ টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ 

এম হেদায়েত,সীতাকুণ্ড

প্রকাশিত : ২০:২৪, ১২ জুন ২০২০

সীতাকুণ্ডে গারো ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর উপর হামলা চালিয়ে টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার উপজেলার কুমিরা ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডে এই ঘটনা ঘটে। 

গতকাল গারো ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর উপর হামলা চালিয়ে ১ লক্ষ ৫১ হাজার টাকা ও একটি মোবাইল ফোন ছিনতাইয়ের অভিযোগ এনে সীতাকুণ্ড মডলে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে উপজেলাধীন কুমিরা এলাকা রহমতপুর (মহলাপাড়া) ৭ নং ওয়ার্ডে পাহাড়ি গারো ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী ইউলিয়াম গারো।

তিনি লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেছেন, গতকাল কুমিরা ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের সদস্য মো. রফিকসহ ৬/৭ জন মিলে আমাদের গ্রামে গিয়ে আমাদের উপর হামলা চালায়। এসময় নারীদেরকেও লাঞ্চিত করে। ঘরের জিনিসপত্র ভাংচুর করে।

ইউলিয়াম গারো আরও বলেন, আমাদের মধ্যে বেশ কয়েকজন স্থানীয় একটি অক্সিজেন ফ্যাক্টরীতে চাকরি করে, তারা গতকাল বেতন পেয়েছে। এসময় হামলাকারীরা ঘরে থাকা আমার ৩০ হাজার টাকা, মিতালী গারোর ৩০ হাজার টাকা,বেদনা গারোর ৭০ হাজার টাকা,অনিঞ্জিলের ১৫ হাজার টাকা, রতন গারোর ১৫ হাজার টাকা এবং ২০ হাজার টাকা মূল্যের একটি মোবাইল তারা নিয়ে যায়। তারা ৮টি পরিবারের ঘরে হামলা করে মোট ১ লাখ ৫১ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। এ টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার প্রতিবাধে গারো নৃ-গোষ্ঠীর  লোকেরা সীতাকুণ্ড থানার সামনে অবস্থান নেয়। 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য রফিক জানান, ওই এলাকায় বেশ কিছুদিন ধরে মাদক ব্যবসা চলে আসছে বলে আমি স্থানীয় সূত্রে অভিযোগ পেয়েছি। তারই প্রেক্ষিতে সকালে আমি এবং আমার কয়েকজন সহকারী মিলে সেখানে তদন্ত করতে যাই এবং মাদক বিক্রয়ের ৩০ হাজার টাকা এক মহিলার কাছ থেকে আমি নিয়ে নিই। কিছুক্ষণ পর টাকাগুলো আবার তাদেরকে ফেরত দেওয়া হয়।

অভিযোগগুলো অস্বীকার করে ইউপি সদস্য উল্টো তার উপর ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর লোকজন হামলা করেছে বলে অভিযোগ করেন।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে সীতাকুণ্ড মডেল থানার উপ-পরিদর্শক মো.মাহবুব আলম বলেন এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত করে আইনগত যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
কেআই/
 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি