ঢাকা, রবিবার   ২০ জুন ২০২১, || আষাঢ় ৫ ১৪২৮

১৫ দিন আটকে রেখে গণধর্ষণ, আটক ১

সাভার সংবাদদাতা

প্রকাশিত : ১৭:৫৭, ২৮ নভেম্বর ২০২০

সাভারের রাজাশন এলাকায় এক নারীকে ১৫ দিন আটকে রেখে গণধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় চার যুবকের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়া এক নারী শ্রমিককে ধর্ষণের অভিযোগে এক গার্মেন্টস শ্রমিককে আটক করেছে পুলিশ।

জানা গেছে, সংঘবদ্ধ ধর্ষণের পর ওই ধর্ষণকারীরা ওই নারীর শরীরের বিভিন্নস্থানে সিগারেটের আগুনে ছ্যাঁকা দিয়েছে। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সাভার মডেল থানার ওসি (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম।

এদিকে, সাভারের উলাইলে এক নারী শ্রমিককে ধর্ষণের অভিযোগে নাহিদ মিয়া (৩০) নামে এক গার্মেন্টস শ্রমিককে আটক করেছে সাভার মডেল থানা পুলিশ। শনিবার (২৮ নভেম্বর) সকালে সাভারের উলাইলের কর্ণপাড়া এলাকার ভাড়া বাড়ি থেকে তাকে আটক করা হয়। 

ধর্ষক নাহিদ মিয়া (৩০) কুড়িগ্রাম জেলার রাজারহাট থানার রুটি গ্রামের ইয়াসিন আলীর ছেলে।

সাভার মডেল থানা পুলিশ জানায়, ধর্ষিতা নারী সাভারের মজিদপুর ভাড়া বাড়িতে থেকে উলাইলের কর্ণপাড়া এলাকায় ডেনিটেক্স নামের পোশাক কারখানায় কাজ করতো। একই কারখানায় কাজের সুবাদে পোশাক শ্রমিক নাহিদ মিয়ার সঙ্গে তার পরিচয় হয়। এরই সূত্র ধরে পরবর্তীতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নাহিদ মিয়া ওই নারীকে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে আসছিলো। 

পরে শনিবার সকালে আবারও ওই নারীকে ধর্ষণ করলে ধর্ষিতা সাভার মডেল থানায় নাহিদ মিয়াকে প্রধান আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করলে পুলিশ কর্ণপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে। একইসঙ্গে ধর্ষণের শিকার ওই নারীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) প্রেরণ করেছে পুলিশ।

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি