ঢাকা, শনিবার   ১৭ এপ্রিল ২০২১, || বৈশাখ ৪ ১৪২৮

শপথ নিলেন নড়াইলের প্রথম নারী মেয়র

কালিয়ায় ৪২ বছর পর ক্ষমতা বদল

নড়াইল প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১০:৪৮, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১

শপথ নিলেন নড়াইল পৌরসভার প্রথম নারী মেয়র আঞ্জুমান আরা। এদিকে ৪২ বছর পর ক্ষমতা বদল হলো কালিয়া পৌরসভায়। শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে খুলনা বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ে নড়াইল পৌর মেয়র আঞ্জুমান আরা এবং কালিয়া পৌর মেয়র ওয়াহিদুজ্জামান হিরার শপথগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। আজ রোববার দুপুর ১২টার দিকে মেয়র হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করবেন দুই মেয়র।

খুলনা বিভাগীয় কমিশনার ইসমাইল হোসেন এনডিসি তাদেরকে শপথবাক্য পাঠ করান। এছাড়া দু’টি পৌরসভার কাউন্সিলরবৃন্দও শপথবাক্য পাঠ করেন এদিন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত কমিশনার সৈয়দ রবিউল ইসলামসহ অনেকে। গত ৩০ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত নড়াইল ও কালিয়া পৌরসভায় আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের এই দুই মেয়র প্রার্থী বিজয়ী হন। 

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, নড়াইল পৌরসভা ১৯৭২ সালে গঠিত হয়। ক্ষমতার পালা বদলে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের পুরুষ প্রার্থী মেয়র নির্বাচিত হন। তবে এবারই প্রথম নড়াইল পৌরসভায় আওয়ামী লীগ মনোনীত নারী মেয়র নির্বাচিত হলেন।

নড়াইল পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র আঞ্জুমান আরা বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ায় কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। পৌরবাসীকে যথাযথ সেবা দেয়ার চেষ্টা করব। এজন্য সবার সহযোগিতা প্রয়োজন।

এদিকে, ১৯৭৬ সালে কালিয়া পৌরসভা গঠিত হলেও ১৯৭৯ সালের ৯ জুন প্রথম নির্বাচিত পৌর চেয়ারম্যান বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠজন এখলাছ উদ্দিন আহমেদ দায়িত্ব গ্রহণ করেন। এরপর এখলাছ উদ্দিনের আপন ভাইপো একরামুল হক টুকু, এখলাছ উদ্দিনের ছেলে কবিরুল হক মুক্তি (পরপর দুইবার) এবং এখলাছ উদ্দিনের অপর ভাইপো বিএম এমদাদুল হক টুলু কালিয়া পৌর মেয়র নির্বাচিত হন। সর্বশেষ ২০১৬ সালের নির্বাচনে এখলাছ উদ্দিন পরিবারের ঘনিষ্ঠজন মুশফিকুর রহমান লিটন মেয়র নির্বাাচিত হন। একই পরিবারের পাঁচ সদস্য টানা ৪২ বছর কালিয়া পৌরসভায় মেয়রের দায়িত্ব পালন করেন।

এরপর ক্ষমতার পালা বদলে এখলাছ উদ্দিন আহমেদের পরিবারের বাইরে ওয়াহিদুজ্জামান হিরা গত ৩০ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত নির্বাচনে কালিয়া পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হন।

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি