ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৬ অক্টোবর ২০২১, || কার্তিক ১০ ১৪২৮

বিরতি, নাকি এখানেই শেষ স্টোকসের ক্যারিয়ার!

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৫:০৬, ১ আগস্ট ২০২১

বেঞ্জামিন অ্যান্ড্রু স্টোকস

বেঞ্জামিন অ্যান্ড্রু স্টোকস

ক্রিকেট থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য বিরতি নিলেন ইংলিশদের সেরা অলরাউন্ডার বেন স্টোকস। শুক্রবার (৩১ জুলাই) এক বিবৃতিতে স্টোকসের আপাতত ক্রিকেট থেকে দূরে থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। 

ইসিবি জানায়, ‘ইংল্যান্ড পুরুষ দলের অলরাউন্ডার বেন স্টোকস সব ধরনের ক্রিকেট থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য বিরতি নিয়েছেন। মানসিক স্বাস্থ্যকে গুরুত্ব দিতেই সরে গেছেন স্টোকস। এছাড়া তার বাঁ-হাতের আঙ্গুলের চোটও এখনও পুরোপুরি সারেনি।’

স্টোকসের এমন সিদ্বান্তকে সমর্থন জানিয়েছেন ইসিবির ব্যবস্থাপনা পরিচালক অ্যাশলে জাইলস। সেইসঙ্গে স্টোকসকে খুব শীঘ্রই আবারও ইংল্যান্ডের জার্সি গায়ে দেখা যাবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন জাইলস। 

সাবেক এই স্পিনার বলেন, ‘যতটা সময় দরকার স্টোকস নিবে। আমরা ভবিষ্যতে তাকে ইংল্যান্ডের জার্সি গায়ে খেলতে দেখা যাবে বলে আশাবাদী।’

চলমান করোনা মহামারীর মধ্যে যে কোনও সিরিজ খেলাটা ক্রিকেটারদের জন্য কঠিন হয়ে পড়েছে। কোয়ারেন্টাইন-আইসোলেশন পর্ব মিলিয়ে জৈব সুরক্ষার বলয়ের মধ্যে ক্রিকেটারদের দীর্ঘ সময় থাকতে হয়, এতে মানসিকভাবে বিধ্বস্ত হয়ে পড়ে তারা। তাই ধারণা করা হচ্ছে, মানসিক স্বাস্থ্যের দিকে বাড়তি মনোযোগ দিতেই আপাতত ব্যাট-বল থেকে দূরে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন স্টোকস।

অনির্দিষ্টকালের জন্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বিরতি নেয়ায় আসন্ন ভারতের বিপক্ষে সিরিজে পাওয়া যাবে না স্টোকসকে। তাই ভারতের বিপক্ষে সিরিজে স্টোকসের পরিবর্তে সমারসেটের অলরাউন্ডার ক্রেইগ ওভারটনকে দলে নিয়েছে ইংল্যান্ড। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ইংল্যান্ডের হয়ে ২০১১ সালে অভিষেক হওয়ার পর এখন পর্যন্ত ৭১টি টেস্ট, ১০১টি ওয়ানডে ও ৩৪টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন স্টোকস। যেখানে ১৩টি শতকের সঙ্গে ৪৫টি ফিফটি হাঁকিয়ে ৭,৯৪৪ রান করার পাশাপাশি নিয়েছেন ২৫৬টি উইকেট।

বর্তমানে ক্রিকেটারদের মানসিক স্বাস্থ্য খুবই আলোচিত একটা ব্যাপার। এই সমস্যায় এক গাদা ক্রিকেটারের ক্যারিয়ার সংক্ষিপ্ত হয়ে গেছে নানা সময়ে। আর কাকতালীয়ভাবে এখানে ইংলিশ ক্রিকেটারের সংখ্যাই বেশি। জনি বেয়ারস্টোর বাবা ডেভিড বেয়ারস্টো তো মানসিক অবসাদে ভুগে আত্মহত্যাই করে বসেন। আধুনিককালে এসে মার্কাস ট্রেসকোথিক, জোনাথন ট্রট, অ্যান্ড্রু ফ্লিনটফ কিংবা নারী ক্রিকেটার সারা টেইলর – এসব ইংলিশ তারকাকে দেখা গেছে মানসিক অবসাদে আগাম বিদায় নিতে।

এবার সদ্যই সেই তালিকায় যোগ হয়েছেন ইংল্যান্ডকে বিশ্বকাপ ও অ্যাশেজ জেতানো নায়ক বেন স্টোকস। অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্রিকেট থেকে বিরতি নিয়েছেন তিনি। ভারতের বিপক্ষে আসছে টেস্ট সিরিজে তো তাঁকে দেখা যাবেই না, ঠিক কবে নাগাদ আবার দেখা যাবে সেটাও নিশ্চিত না। আদৌ তিনি আর ফিরবেন কি না, সেই ব্যাপারেও কিছুই খোলাসা করেনি ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)।

সম্প্রতি স্টোকস অধিনায়ক হিসেবে পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিতীয় সারির একটা দল নিয়ে সিরিজ জিতেন ৩-০ ব্যবধানে। টি-টোয়েন্টি সিরিজে ছিলেন বিশ্রামে। তখন কে জানতো, মনের মধ্যে এতটা অন্ধকার জমে গেছে ৩০ বছর বয়সী এই কিউই বংশদ্ভুতের। তবে, এটা ঠিক যে বিশ্বকাপ ও অ্যাশেজের পর থেকেই বাবার অসুস্থতাজনিত কারণে মানসিক ভাবে বিপর্যস্ত ছিলেন তিনি। তাই আপাতত পরিবারের সাথে সময় কাটিয়েই মনের ভাঙা অংশগুলো জোড়া লাগাতে চান স্টোকস।

এনএস//


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি