ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৮ অক্টোবর ২০২১, || কার্তিক ১২ ১৪২৮

কাশ্মীর ইস্যুতে ফের টুইট ‘যুদ্ধে’ গম্ভীর-আফ্রিদি

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৩:৪৩, ২৯ আগস্ট ২০১৯ | আপডেট: ১৩:৪৬, ২৯ আগস্ট ২০১৯

ভারতীয় ক্রিকেটার গৌতম গম্ভীর ও পাকিস্তানি তারকা শহীদ আফ্রিদি। খেলার মাঠেও যেমন ছিলেন চির প্রতিদ্বন্দ্বী, তেমনি প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেন মাঠের বাইরেও। অবসরের পরও যার রেশ কাটেনি। সুযোগ পেলেই সমালোচনার তীরে বিদ্ধ করেন একে অপরকে। সম্প্রতি কাশ্মীর ইস্যুতে আরেকবার টুইট লড়াইয়ে জড়ালেন এই দুই তারকা।

সম্প্রতি জম্মু-কাশ্মীরের ওপর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে নেয়ার প্রতিবাদে সবাইকে কাশ্মীরিদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান পাকিস্তান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। সেই সূত্রে সীমান্তে গিয়ে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আবেদন করেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি।

বুধবার টুইটারে তিনি লেখেন, প্রধানমন্ত্রীর প্রস্তাবে আমাদের সাড়া দেয়া উচিত। শুক্রবার দুপুর ১২টায় আমি ‘মাজ়ার ই কায়েদ’-এ থাকব। ৬ সেপ্টেম্বর এক শহীদের বাড়ি পরিদর্শন করব। অতি শীঘ্রই সীমান্তে যাব। আমাদের কাশ্মীরি ভাইদের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করতে আমার সঙ্গে যোগ দিন।

আফ্রিদির এই টুইটের জবাবে চুপ থাকেননি সাংসদ গম্ভীর। সাবেক পাক তারকার এ আবেদন নিয়ে ব্যঙ্গ করেন সাবেক ভারতীয় ওপেনার। আফ্রিদির একটি ছবি পোস্ট করে তিনি লেখেন, এ ছবিতেই আফ্রিদি জিজ্ঞাসা করছেন কোন কাজ করে আরও একবার নিজেকে লজ্জিত করা যায়। আরও একবার প্রমাণ হয়ে গেল, এখনও পরিণত হয়নি ও। এখনও অনেক সময় লাগবে ওর। তাই ঠিক করেছি, ওকে অনলাইন কিন্ডারগার্টেন টিউটোরিয়ালের শরণাপন্ন হওয়ার প্রস্তাব দেব।

এর আগে আগস্টের প্রথম সপ্তাহে জম্মু-কাশ্মীর, লাদাখকে পৃথক করে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল ঘোষণা করে ভারতীয় সরকার। পুরোপুরি কেড়ে নেয়া হয় কাশ্মীরিদের স্বাধীনতা। সে পরিপ্রেক্ষিতে বিষয়টি খতিয়ে দেখতে জাতিসংঘের প্রতি আহ্বান জানান আফ্রিদি। 

সেবারও আফ্রিদিকে টুইটে আক্রমণ করেন গৌতম গম্ভীর। ২০০৭ সালে কানপুরে ওয়ানডেতে ম্যাচ চলাকালীন ঝামেলায় জড়ান এ দুজন। সেই থেকে শুরু। এর পর থেকে ভারতবিদ্বেষী কোনও মন্তব্য করলেই আফ্রিদিকে আক্রমণ করতে ছাড়েন না ভারতীয় সাবেক ওপেনার। 

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি