ঢাকা, সোমবার   ১৯ এপ্রিল ২০২১, || বৈশাখ ৫ ১৪২৮

আফগানিস্তানকে গুটিয়ে দিয়েও বিপদে জিম্বাবুয়ে

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৮:২৫, ২ মার্চ ২০২১

৪ উইকেট নেয়ার মাঝে সতীর্থদের সঙ্গে মুজারাবানির উদযাপন।

৪ উইকেট নেয়ার মাঝে সতীর্থদের সঙ্গে মুজারাবানির উদযাপন।

আফগানিস্তানকে মাত্র ১৩১ রানে গুটিয়ে দিয়েও স্বস্তিতে নেই জিম্বাবুয়ে। স্বাগতিকদের বোলিং তোপে ৩৮ রানেই ৪ উইকেট হারিয়ে এখন বিপদে সফরকারীরা। আজ মঙ্গলবার থেকে আবু ধাবিতে শুরু হওয়া দুই টেস্ট সিরিজের প্রথমটিতে মুখোমুখি উভয় দল।

এদিন টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে প্রথম বলেই উইকেট হারায় আফগানিস্তান। মুজারাবানির পেস তোপে এরপর মাত্র ৮ রানেই দ্বিতীয় উইকেট হারায় আসগর আফগানের দল। এরপর উইকেট শিকারে যোগ দেন আরেক পেসার ভিক্টর নায়ুচি। 

মূলত এই দুই বোলারের আগুনে বোলিংয়ে একে একে উইকেট হারাতে থাকা জিম্বাবুয়ে শেষ পর্যন্ত গুটিয়ে যায় ১৩১ রানেই। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৭ রান আসে অধিনায়ক আসগর আফগানের ব্যাট থেকে। এছাড়া ৩১ রান করেন ওপেনার ইব্রাহিম জাদরান। 

আর প্রতিপক্ষকে গুটিয়ে দেয়ার ক্ষেত্রে সবচেয়ে অগ্রগণ্য ভূমিকায় ছিলেন জিম্বাবুইয়ান পেসার ব্লেসিং মুজারাবানি। ৪৮ রানের বিনিময়ে সর্বোচ্চ ৪টি উইকেট নেন তিনি। কম জাননি ভিক্টর নায়ুচিও। তিনটি উইকেট গেছে মাত্র চতুর্থ টেস্ট খেলতে নামা ২৮ বছর বয়সী এই পেসারের ঝুলিতে।    

স্বাগতিকদেরকে এই অল্প রানে আটকে দিয়েও স্বস্তিতে নেই সফরকারীরা। ব্যাট করতে নেমে তারাও উইকেট হারায় প্রথম ওভারেই। ইনিংসের চতুর্থ বলেই উইকেট হারানো জিম্বাবুয়ে তাদের দ্বিতীয় উইকেট হারায় ২২ রানেই। এরপর ১৪তম ওভারে এসে পরপর দুই বলে ওপেনার প্রিন্স মাসভাউরে (১৫) ও নতুন নামা ওয়েসলি মাধেভেরেকে (০) রানের খাতা খোলার আগেই সাজঘরের পথ দেখান আমির হামজা। 

দলের বড় তারকা রশিদ খানের পরিবর্তে নিজের দ্বিতীয় টেস্ট খেলতে নেমেই দ্রুত তিনটি উইকেট নিজের করে নেন এই বাঁহাতি স্পিনার। যাতে ৩৮ রানেই চতুর্থ উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে রোডেশিয়ানরা। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ওই ৪ উইকেট হারিয়েই তাদের সংগ্রহ ৯৪। ৩৬ রান নিয়ে ক্রিজে আছেন অভিজ্ঞ সিকন্দার রাজা। সঙ্গে ৩১ রান নিয়ে আছেন দলীয় অধিনায়ক শিন উইলিয়ামস।  

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি