ঢাকা, সোমবার   ১৪ জুন ২০২১, || জ্যৈষ্ঠ ৩০ ১৪২৮

ব্যাটিংয়ে শীর্ষে জয়, বোলিংয়ে তানভীর

নাজমুশ শাহাদাৎ

প্রকাশিত : ১৬:১৫, ১০ জুন ২০২১ | আপডেট: ১৬:২৩, ১০ জুন ২০২১

মুস্তাফিজ, শরিফুল, নাঈম ও আফিফ

মুস্তাফিজ, শরিফুল, নাঈম ও আফিফ

চলছে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ তথা ডিপিএলের টি-টোয়েন্টি আসর। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম এই ফরম্যাটে সর্বত্রই চার-ছক্কার ফুলঝুরি দেখা গেলেও উল্টো চিত্র ডিপিএলে। এখানে ছড়ি ঘোরাচ্ছেন বোলাররাই। এজন্য অবশ্য উইকেটকেই দায়ী করছেন অনেকে। যদিও মাঝে মধ্যে ব্যাটসম্যানরাও ভূমিকা রাখছেন দারুণভাবে।

তবে বোলিং-ব্যাটিং উভয়ের সমন্বয়েই এখন পর্যন্ত হওয়া ছয় ম্যাচের একটিতে হেরে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে অবস্থান করছে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব। অন্যদিকে সবকটিতেই হেরে একবারে তলানিতে জায়গা করে নিয়েছে পার্টেক্স স্পোর্টং ক্লাব।

১২টি দলের এই টুর্নামেন্টে এবার শুরু থেকেই চমক দেখাচ্ছিল বোলাররা। তবে সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে নিজেদের খোলস ছেড়ে বেরিয়ে এসেছে ব্যাটসম্যানরাও। যার ফলে এখন পর্যন্ত কোনও শতকের দেখা না মিললেও অর্ধশতকের দেখা মিলেছে ২৯টি। যার মধ্যে সর্বোচ্চ ইনিংস রয়েছে ৮৫ রানের। যে ইনিংসটি আজই গাজী গ্রুপের বিপক্ষে খেলেছেন ওল্ড ডিওএসচএসের ব্যাটসম্যান মাহমুদুল হাসান জয়।

একইসঙ্গে দুই ফিফটি নিয়ে ছয় ম্যাচের পাঁচ ইনিংসে ব্যাট করে ১২০.৫ গড়ে সর্বোচ্চ ২৪১ রান সংগ্রহ করে রান সংগ্রাহকের তালিকায় এক নম্বরে অবস্থান করছেন অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী দলের এই ক্রিকেটার।

দুই ফিফটি হাঁকিয়ে ৩৬ গড়ে ২১৬ রান নিয়ে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে জায়গা করে নিয়েছেন ব্রাদার্স ইউনিয়নের ওপেনার মিজানুর রহমান। ছয় ম্যাচের ছয় ইনিংসেই ব্যাট করা মিজানুরের সর্বোচ্চ ইনিংস ৭৪, আজ খেলাঘরের বিপক্ষেও করেন ৬০ বলে ৬৬ রান।

শাইনপুকুরের বিপক্ষে আজ ৭০ রানের ইনিংস খেলে তালিকার তিন নম্বরে উঠে এসেছেন মোহাম্মদ নাঈম। ছয় ইনিংসে ব্যাট করা আবাহনীর এই ওপেনারের মোট রান ৪১.৪০ গড়ে ২০৭। ফিফটি হাঁকিয়েছেন এই একটিই।

এছাড়া দুটি ফিফটি হাঁকিয়ে ৩২.১৬ গড়ে ১৯৩ রান নিয়ে তালিকার তৃতীয় স্থানে আছেন গাজী গ্রুপের সৌম্য সরকার। সর্বোচ্চ ইনিংস ৬৭। আর এক ফিফটিতে ৩৭.৪০ গড়ে ১৮৭ রান নিয়ে তালিকার পঞ্চম স্থানে জায়গা পেয়েছেন আনিসুল ইসলাম ইমন। ওল্ড ডিওএসচএসের এই ব্যাটম্যানের সর্বোচ্চ ইনিংস ৬৪। 

অন্যদিকে, ৮.৫৩ গড়ে ও ৪.৮২ ইকোনোমি রেটে ছয় ম্যাচে ১৩টি উইকেট নিয়ে বোলারদের তালিকায় শীর্ষে উঠেছেন তানভীর ইসলাম। শাইনপুকুরের এই স্পিনার ইনিংসে পাঁচ উইকেট না পেলেও সেরা বোলিং ফিগার ২৩ রানে ৪ উইকেট।

সমান সংখ্যক ম্যাচে সমান সংখ্যক উইকেট শিকার করলেও ইকোনোমি রেট (৬.৫) ও রান গড়ে (১০) পিছিয়ে থেকে দুইয়ে অবস্থান করছেন কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমান। তবে ইনিংসে একবার পাঁচ উইকেট নিয়েছেন ফিজ। সেরা বোলিং ফিগার ৫/২২। 

১২টি ও ১১টি করে উইকেট নিয়ে এই দুজনের পরেই আছেন খেলাঘরের পেসার খালেদ আহমেদ ও শেখ জামালের স্পিনার সালাউদ্দিন শাকিল। ৯টি উইকেট নিয়ে সেরা পাঁচে জায়গা করে নিয়েছেন প্রাইম ব্যাংকের স্পিনার নাঈম হাসান।

এছাড়াও ব্যাটিংয়ে তামিম ইকবাল, আফিফ হোসাইন, মোহাম্মদ মিঠুনদের পাশাপাশি বোলিংয়েও ভালো করছেন শরিফুল, শফিকুল, রাকিবুলরা। 

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি