ঢাকা, শনিবার   ১৭ এপ্রিল ২০২১, || বৈশাখ ৩ ১৪২৮

সম্পর্ক না রাখায় নারীকে কুপিয়ে জখম

নওগাঁ প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৭:৫৮, ১ মার্চ ২০২১

রিকশা চালক নজমুল

রিকশা চালক নজমুল

নওগাঁয় প্রেমের সম্পর্ক না রাখার জেরে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে আছমা খাতুন (২৭) নামে এক নারীকে গুরুত্বর জখম করাসহ হাতের আঙ্গুল হাত থেকে বিচ্ছিন্ন করার অভিযোগে নজমুল হোসেন (৪২) নামে এক রিকশা চালককে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে। 

আজ সোমবার দুপুর ১২টার দিকে শহরের দয়ালের মোড় পপুলার ল্যাব এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারের সামনে ঘটা এ ঘটনায় ওই নারীকে গুরুত্বর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আটক নজমুল হোসেন শহরের মাস্টারপাড়া মহল্লার মজিবর রহমানের ছেলে।

জানা গেছে, নওগাঁ সদর উপজেলার চকতাতারু গ্রামের বাসিন্দা আছমা খাতুন ২০১৬ সালে স্বামী মারা যাওয়ার পর থেকে শহরের দয়ালের মোড় এলাকার বিভিন্ন বাসা-বাড়িতে গৃহকর্মীর কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছিলেন। ঘটনার দিন সোমবার দুপুর ১২টার দিকে শহরের দয়ালের মোড় এলাকার হাসপাতাল রোড় দিয়ে ওই নারী কর্মস্থলে যাওয়ার পথে পেছন থেকে নজমুল হোসেন ওই নারীর ওপর চাপাতি দিয়ে হামলা চালায়। এসময় ওই নারীকে এলোপাতাড়ি কোপালে তার মাথা ও ঘাড়ের বিভিন্ন স্থান গুরুত্বর জখম হয়। এর একপর্যায়ে চাপাতির আঘাতে ওই নারীর ডান হাতের শাহাদাৎ আঙ্গুলটি হাত থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। 

এসময় স্থানীয়রা এগিয়ে এসে গুরুত্বর আহত অবস্থায় আছমাকে উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে দেয়। একইসাথে নজমুলকে আটক করে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে।

ঘটনার বিষয়ে আটক নজমুল হোসেন বলেন, আছমার সাথে ২০১৭ সাল থেকে আমার পরিচয়। পরিচয়ের একপর্যায়ে আমার সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। আমরা মাঝেমধ্যে দেখা সাক্ষাৎ করতাম। এক পর্যায়ে আমার কাছ থেকে সে দূরে সরে যাচ্ছে। আমাকে আর গুরুত্ব দিচ্ছে না। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে চাপাতি দিয়ে আমি কুপিয়েছি- এভাবেই অকপটে স্বীকার করে রিকশা চালক নজমুল।

বিষয়টি নিশ্চিত করে নওগাঁ সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হাফিজুর রহমান বলেন, ঘটনার পর স্থানীয়রা নজমুল হোসেনকে আটক করে রেখেছিল। সংবাদ পাওয়ার পর ঘটনাস্থল থেকে তাকে থানা হেফাজতে নেওয়া হয়েছে এবং ঘটনাস্থল থেকে হামলায় ব্যবহৃত চাপাতিও উদ্ধার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে।

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি