ঢাকা, রবিবার   ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, || অগ্রাহায়ণ ২১ ১৪২৮

বিশ্বকাপে প্রথম আঘাত বিলালের

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৬:০৯, ১৭ অক্টোবর ২০২১ | আপডেট: ১৬:১৩, ১৭ অক্টোবর ২০২১

বিলাল খান

বিলাল খান

বিশ্বকাপ বাছাই পর্ব পেরিয়ে মূল টুর্নামেন্টে জায়গা করে নিয়েছে স্বাগতিক ওমান। নিজেদের ভূমিতে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া বিশ্বকাপকে স্মরণীয় করে রাখতে বিশেষ কিছু করার চেষ্টা করবে ওমান ক্রিকেট দল। সেই লক্ষ্যে টস জিতে পাপুয়া নিউগিনিকে আগে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানিয়ে ইনিংসের চতুর্থ বলেই উইকেট তুলে নেয় স্বাগতিকরা। আর এবারের বিশ্বকাপে প্রথম আঘাত হেনে ইতিহাসে নাম লেখালেন বিলাল খান।

এর আগে গত ৮ সেপ্টেম্বর বিশ্বকাপের জন্য দল ঘোষণা করে ওমান। প্রথমবারের মতো সহযোগী দেশ হিসেবে আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আয়োজক হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে ওমান ক্রিকেট দল। দীর্ঘ পাঁচ বছর পর অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপটি সংযুক্ত আরব আমিরাতের পাশাপাশি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে ওমানেও। আর নিজেদের মাটিতে একটু নির্ভারই থাকবে দলটি।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় অর্জন আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে জয়। ২০১৬ সালে ভারতে মাটিতে অনুষ্ঠিত হওয়া বিশ্বকাপে আয়ারল্যান্ডের দেওয়া ১৫৫ রানের লক্ষ্য তাড়া করে ফেলে ওমান ক্রিকেট দল। অবশ্য পরবর্তীতে সবগুলো ম্যাচ হেরে টুর্নামেন্টের প্রথম পর্ব থেকেই বাদ পড়ে তারা।

২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ওমানের অংশগ্রহণ খানিকটা অবাক করার মতোই। বিশ্বকাপের আগের বছরেও আইসিসি ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট লিগের ডিভিশন ৫ এর ক্রিকেট খেলছিল ওমান। এবার অবশ্য বিশ্বকাপের বাছাই পর্ব খেলতে হয়েছে তাঁদের।

২০১৯ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে গ্রুপে দ্বিতীয় স্থানে ছিল তারা। সেবার প্লে-অফে নামিবিয়ার কাছে ৫৪ রানে হারলেও বাচা-মরার লড়াইয়ে হংকংকে ১২ রানে হারিয়ে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলার যোগ্যতা অর্জন করে ওমান।

২০১৫ সালে টি-টোয়েন্টির স্বীকৃতি পেয়ে এখন পর্যন্ত ৩৬টি ম্যাচ খেলেছে তারা। যার মধ্যে ১৯টিতে হেরেছে ওমান। বড় জয় বলতে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে।

দলের শক্তির জায়গা –
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তুলনামূলক সহজ গ্রুপেই রয়েছে ওমান। বাংলাদেশ ছাড়াও ঐ গ্রুপে রয়েছে স্কটল্যান্ড, পাপুয়া নিউগিনি দল। এই তিনটি দলের বিপক্ষে লড়াই করতে হলে ব্যাট হাতে দায়িত্ব নিতে হবে জতিন্দর সিংকে। ২০১৯ বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে দলের হয়ে সর্বোচ্চ (২৬৭) রান স্কোরার ছিলেন তিনি। 

তাছাড়াও ব্যাট হাতে দ্রুত ইনিংস খেলাতেও পারদর্শী তিনি। জতিন্দরের পাশাপাশি বল হাতে দায়িত্ব নিতে হবে বিলাল খানকে। ২০১৯ বাছাই পর্বে সর্বোচ্চ ১৮টি উইকেট নিয়েছিলেন তিনি।

পাপুয়া নিউ গিনি একাদশ: 
টনি উরা, আসাদ ভালা (অধিনায়ক), চার্লস অ্যামিনি, লেগা সায়াকা, নরম্যান ভানুয়া, সেস বাউ, সাইমন আতাই, কিপলিন ডোরিগা (কীপার), নোসাইনা পোকানা, ডেমিয়েন রাভু, কাবুয়া মোরিয়া।

ওমান একাদশ: 
যতিন্দর সিং, খাওয়ার আলী, আকিব ইলিয়াস, জীশান মাকসুদ (অধিনায়ক), নাসিম খুশি (কীপার), মোহাম্মদ নাদিম, আয়ান খান, সন্দীপ গৌড়, কালেমুল্লাহ, বিলাল খান।

এনএস//


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি