ঢাকা, মঙ্গলবার   ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, || অগ্রাহায়ণ ২৩ ১৪২৮

মোরেলগঞ্জে নবজাতক হত্যা, বাবা গ্রেফতার

বাগেরহাট প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৬:০৯, ১৯ নভেম্বর ২০২০

বাগেহাটের মোরেলগঞ্জে ঘুমন্ত মা-বাবার কোল থেকে সোহানা নামক এক নবজাতক চুরি ও হত্যার ঘটনায় শিশুটির বাবা সুজন খানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) দুপুরে সুজনকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন বাগেরহাটের পুলিশ সুপার পঙ্কজ চন্দ্র রায়। 

এছাড়াও হত্যার রহস্য উদঘাটন ও হত্যার সাথে জড়িতদের শনাক্ত করতে সুজনের ছোট ভাই রিপন খান (২৫) ও ভগ্নিপতি হাসিব শেখের (৩০) ডিএনএ টেস্ট করা হবে বলে জানিয়েছেন পুলিশ।

এর আগে বুধবার বিকেলে শিশু সোহানা হত্যাকান্ডের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার বাবা সুজন খান, চাচা রিপন খান ও ফুফা হাসিব শেখকে হেফাজতে মোরেলগঞ্জ থানা পুলিশ।

এদিকে হত্যাকান্ডের পর থেকে এখন পর্যন্ত স্বাভাবিক হতে পারেনি শিশিুটির মা শান্তা আক্তার। সন্তান হত্যার সঙ্গে যদি নিজের স্বামীও জড়িত থাকে তাহলে তার সর্বোচ্চ শাস্তি চেয়েছেন সন্তান হারা মা শান্তা আক্তার।

বাগেরহাটের পুলিশ সুপার পঙ্কজ চন্দ্র রায় বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও তদন্ত শেষে আমরা জড়িত সন্দেহে শিশুটির পিতা সুজন খানকে গ্রেফতার করেছি। তাকে আদালতে সোপর্দের প্রক্রিয়া চলছে। 

এছাড়াও সুজনের ছোট ভাই রিপন খান (২৫) ও ভগ্নিপতি হাসিব শেখের (৩০) ডিএনএ টেস্ট করা হবে। হত্যার মূল রহস্য উদঘাটন করতে পুলিশের তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান তিনি।

মোরেলগঞ্জ উপজেলার গাবতলা গ্রামে বাবা সুজন খান ও মা শান্তা আক্তারের সঙ্গে ঘুমিয়ে থাকা অবস্থায় গত ১৫ নভেম্বর মধ্য রাতে খোয়া যায় ১৭দিন বয়সী সোহানা। পরেরদিন সোমবার ভোর থেকে পুলিশের একাধিক টিম শিশুটিকে উদ্ধারে অভিযান শুরু করলে কোনও কূল কিণারা করতে পারেনি পুলিশ। 

পরে সোমবার (১৬ নভেম্বর) রাতে অজ্ঞাতনামা আসামি করে মোরেলগঞ্জ থানায় মামলা করে শিশুটির দাদা আলী হোসেন খান। বুধবার (১৮ নভেম্বর) সকালে নামাজের পরে নিজ ঘরের সামনের পুকুরে নাতির মরদেহ ভাসতে দেখেন আলী হোসেন। পরে পুলিশ শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি