ঢাকা, বুধবার   ২৯ জুন ২০২২

উত্তেজনাময় দিনে তৃতীয় রাউন্ডে জকোভিচ-সেরেনা

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২৩:০৩, ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২১

জকোভিচ ও সেরেনা উইলিয়ামস

জকোভিচ ও সেরেনা উইলিয়ামস

অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের তৃতীয় দিনটি ছিল উত্তেজনায় ঠাসা। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন নোভাক জকোভিচকে যেমন কষ্টার্জিত জয়ে তৃতীয় রাউন্ড নিশ্চিত করতে হয়েছে, ঠিক তেমনি সাবেক চ্যাম্পিয়ন স্ট্যান ওয়ারিঙ্কাকে নিতে হয়েছে অমোঘ বিদায়। মেয়েদের বিভাগে সেরেনা উইলিয়ামস সহজ জয়ে তৃতীয় রাউন্ডে উঠলেও পেরে ওঠেননি দুটি গ্র্যান্ড স্ল্যামের মালিক পেট্রা কোভিতোভা।

রড লেভার এরিনাতে আজ বুধবার শীর্ষ বাছাই জকোভিচের বিপক্ষে মার্কিন ফ্রান্সেস টিয়াফো বেশ বিপদজনক হয়ে উঠেছিলেন। প্রথম সেটে সার্বিয়ার নাম্বার ওয়ান ভালই নিয়ন্ত্রণ বজায় রাখলেও দুই বছর আগে কোয়ার্টার ফাইনালে খেলা টিয়াফো দ্রুতই লড়াইয়ে ফিরে আসেন। দ্বিতীয় সেটটি টাইব্রেকারে জয়ী হয়ে জকোভিচের কাছ থেকে ছিনিয়ে নেন তিনি। পরের দুই সেটেও কঠিন লড়াইয়ের পর শেষ পর্যন্ত ৬-৩, ৬-৭ (৩/৭), ৭-৬ (৭/২) ও ৬-৩ গেমে জয়ী হয়ে তৃতীয় রাউন্ড নিশ্চিত করেন জকোভিচ। একইসাথে নবম অস্ট্রেলিয়ান শিরোপা জয়ের পথে আরও একধাপ এগিয়ে গেলেন এই সার্বিয়ান তারকা।

ম্যাচ শেষে জকোভিচ স্বীকার করতে বাধ্য হয়েছেন যে, ম্যাচটি বেশ কঠিন ছিল। বিশেষ করে প্রচন্ড গরমে এক সময় লম্বা র‌্যালির বলগুলো খেলতে সমস্যা হচ্ছিল। প্রতিপক্ষ ফ্রান্সেসের প্রশংসা করে জকোভিচ বলেছেন, তার দিক থেকে ম্যাচ জয়ের সব চেষ্টাই সে করেছে।

দিনের আরেক ম্যাচে সহজ জয় নিশ্চিত করে তৃতীয় রাউন্ডে উঠেছেন ইউএস ওপেন বিজীয় ডোমিনিক থিয়েম। তৃতীয় বাছাই এই অস্ট্রিয়ান মার্গারেট কোর্ট এরিনাতে জার্মানীর ডোমিনিক কোয়েফারকে এক ঘণ্টা ৩৯ মিনিটের লড়াইয়ে ৬-৪, ৬-০, ৬-২ গেমের সরাসরি সেটে পরাজিত করে তৃতীয় রাউন্ড নিশ্চিত করেন। 

বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ের ৭০তম স্থানে থাকা বাঁহাতি কোয়েফার এর আগে কখনওই শীর্ষ পাঁচ প্রতিপক্ষকে পরাজিত করতে পারেননি। পুরো ম্যাচে সার্ভিসের ক্যারিশমা দেখিয়েছেন অস্ট্রিয়ান তারকা। গত বছর অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ফাইনালে জকোভিচের কাছে অল্পের জন্য হেরে শিরোপা বঞ্চিত হয়েছিলেন থিয়েম। অবশেষে গত বছরই ইউএস ওপেনের ফাইনালে আলেক্সান্দার জেভরেভকে পরাজিত করে বছরের প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম পরাজয়ের হতাশা কিছুটা হলেও ভুলতে পেরেছিলেন তিনি। কোচ নিকোলাস মাসু করোনা পজিটিভ হওয়ায় তাকে ছাড়াই মেলবোর্নে খেলতে এসেছেন থিয়েম।

জকোভিচ, থিয়েমের জয়ের দিনে পেরে ওঠেননি সুইস তারকা স্ট্যান ওয়ারিঙ্কা। পাঁচ সেটের কঠিন লড়াইয়ে শেষ পর্যন্ত হাঙ্গেরিয়ান মার্টিন ফুকসোভিক্সের কাছে নতি স্বীকার করতে বাধ্য হন। প্রায় চার ঘণ্টার এই জমজমাট লড়াইয়ে ৭-৫, ৬-১, ৪-৬, ২-৬, ৭-৬ (১১/৯) গেমে পরাজিত হয়েছেন ওয়ারিঙ্কা। আর এর মাধ্যমে এবারের আসরের দ্বিতীয় রাউন্ড থেকেই বিদায় ঘটল তিনবারের স্ল্যাম বিজয়ীর। 

গত বছর তিনি টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যন্ত খেলেছিলেন। ২০১৪ সালের বিজয়ী ৩৫ বছর বয়সী ওয়ারিঙ্কা মূলত প্রথম দুই সেটে ফুকসোভিক্সের গভীরতার কাছে পরাস্ত হয়েছেন। পঞ্চম সেটে তিনটি ম্যাচ পয়েন্ট আদায় করে নিলেও একটিও কাজে লাগাতে পারেননি ১৭তম বাছাই ওয়ারিঙ্কা। বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে ৫৫তম অবস্থানে থাকা ফুকসোভিক্স গত বছর স্ল্যাম সেরা পারফরমেন্স দেখিয়ে শেষ ১৬’ পর্যন্ত খেলেছিলেন।

এদিকে, নারী বিভাগে সহজ জয়ে এগিয়ে চলেছেন সেরেনা উইলিয়ামস। ৩৯ বছর বয়সী এই মার্কিন অভিজ্ঞ তারকা দ্বিতীয় রাউন্ডে মাত্র ৬৯ মিনিটে নিনা স্টোয়ানোভিচকে পরাজিত করে তৃতীয় রাউন্ড নিশ্চিত করেন। অস্ট্রেলিয়ায় আসার পর ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন করার পর থেকে সেরেনা অপরাজিত রয়েছেন। ম্যাচে স্টোয়ানোভিচকে উড়িয়ে দিতে সেরেনা ২৯টি উইনিং শট খেলেছেন। 

ম্যাচ শেষে সেরেনা বলেছেন, ‘আমি প্রথম সেটের তুলনায় দ্বিতীয় সেটটি নিয়ে বেশী চিন্তা করেছি। এমনকি সার্ভিস নিয়ে বাড়তি একটি চিন্তা আমার মধ্যে কাজ করছিল। একেবারেই ভাবতে পারিনি ম্যাচটি এত সহজ হবে।’

সেরেনা জিতলেও টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে গেছেন বড় বোন ভেনাস উইলিয়ামস। চোট নিয়ে খেলতে নেমে ৪০ বছর বয়সী ভেনাস ৬-১, ৬-০ গেমে হেরেছেন সারা এরিনার বিপক্ষে।

অন্যদিকে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ২০১৯ সালের ফাইনালিস্ট নবম বাছাই চেক প্রজাতন্ত্রের পেট্রা কেভিতোভা ৬-৪, ১-৬ ও ৬-১ সেটে হেরেছেন রোমানিয়ার সোরানা সার্সটির বিপক্ষে। প্রথম সেটে হারার পর দ্বিতীয় সেটে দারুণভাবে ফিরে এসেছিলেন কেভিতোভা। কিন্তু ৪৪টি আনফোর্সড এরর ও সাতটি ডাবল ফল্টে শেষ পর্যন্ত আর পেরে ওঠেননি দুইবারের গ্ল্যান্ড স্ল্যাম বিজয়ী কেভিতোভা। 

৩০ বছর বয়সী এই চেক গত বছর ফ্রেঞ্চ ওপেনের সেমিফাইনালে খেলার মাধ্যমে বছরটা ভালভাবেই শেষ করেছিলেন। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ায় পৌঁছে কোয়ারেন্টাইনে থাকার পর থেকে প্রস্তুতিটা ভালোভাবে সেরে উঠতে পারেননি।

আজ আরও জয় পেয়েছেন অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের গত বছরের ফাইনালিস্ট গার্বেইন মুগুরুজা। মেলবোর্নের প্রচন্ড গরমের মধ্যেও দুর্দান্ত ফর্ম দেখিয়ে রাশিয়ান লুদমিলা সামসোনাভোকে ৬-৩, ৬-১ গেমে হারিয়েছেন তিনি। এছাড়া সপ্তম বাছাই বেলারুশের অ্যারেনা সাবালেঙ্কা ৭-৬ (৭/৫), ৬-৩ গেমে রাশিয়ার দারিয়া কাসাতকিনাকে হারিয়ে তৃতীয় রাউন্ড নিশ্চিত করেছেন।

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি