ঢাকা, সোমবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২১, || মাঘ ৪ ১৪২৭

ভারতীয় বোলারদের নিয়ে স্মিথদের ছেলেখেলা

নাজমুশ শাহাদাৎ

প্রকাশিত : ১৫:৪০, ২৯ নভেম্বর ২০২০

স্টিভ স্মিথের সেঞ্চুরি উদযাপন

স্টিভ স্মিথের সেঞ্চুরি উদযাপন

বোলারদের নিয়ে ছেলেখেলা করে ভারতের বিরুদ্ধে সবচেয়ে বেশি রানের রেকর্ড গড়ল অস্ট্রেলিয়া। ৩৯০ রানের বিশাল লক্ষ্য রাখল তারা বিরাট কোহলিদের সামনে। পাওয়ার প্লে-তে উইকেট না পাওয়াটাই ভোগাচ্ছে ভারতকে। যে কারণে বড় বড় স্কোর করছেন স্মিথ-ওয়ার্নাররা। স্মিথ তো হাঁকিয়েছেন টানা সেঞ্চুরি।

আজ রোববার হার্দিক পান্ডিয়াকে দেখা গেলো বল করতে। তিনি স্মিথকে ফেরালেও ততক্ষণে শতরান করে ফেলেছেন সাবেক অজি অধিনায়ক। চার ওভার বল করে ২৪ দিলেন হার্দিক। শামি দিলেন ৭৩ রান, বুমরাহ ৭৯। অবশ্য এই দুই জনেই নিয়েছেন একটি করে উইকেট। 

অন্যদিকে, নবদীপ সাইনি ৭ ওভার বল করে দিয়েছেন ৭০ রান, উইকেট পাননি তিনি। কোনও উইকেট পাননি জাদেজা ও চহালও। এই রানের পাহাড় টপকে জিততে গেলে নিজের ২৫০তম ম্যাচ স্মরণীয় করে রাখতে হবে বিরাটকে।

এর আগে ঠিক যেন প্রথম একদিনের ম্যাচের রিপিট টেলিকাস্ট হলো সিডনিতে। ফের ওপেনিংয়ে ভাল শুরু, স্মিথের সেঞ্চুরি এবং বিশাল রানের পাহাড় অস্ট্রেলিয়ার। জেতার জন্য ভারতের প্রয়োজন ৩৯০ রান। 

আর এ নিয়ে টানা দুই ম্যাচেই সেঞ্চুরি হাঁকালেন স্মিথ। আগের দিন ১০৫ রান করে ঠিক যেখানে আউট হন, আজও যেন ঠিক সেখান থেকেই শুরু করে আউট হন ১০৪ রান করে। তার ৬৪ বলের এই তান্ডুবে ইনিংসে ছিল ১৪টি চারের মারের পাশাপাশি দুটি ছক্কার মার। 

এর আগে এদিনও শতাধিক রানের জুটি গড়েন দুই ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার ও অ্যারন ফিঞ্চ। আজ ১৪২ রানে থামে তাদের এই অনবদ্য জুটি। এরমধ্যে অ্যারন ফিঞ্চ ৬০ রান করে আউট হলেও সেঞ্চুরির দিকেই ছুটছিলেন ওয়ার্নার। তবে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্য থেকে মাত্র ১৭ রান দূরে থাকতেই শ্রেয়াস আয়ারের থ্রোতে কাটা পড়েন এই বাঁহাতি লিটল মাস্টার। তার চমৎকার ইনিংসটিতে ছিল সাতটি চারের সঙ্গে তিনিটি বিশাল ছক্কার মার।

অজি দুই ওপেনারের পর ভারতীয় বোলারদের নিয়ে রীতিমত ছেলে খেলায় মেতে ওঠেন স্টিভ স্মিথ ও মার্নাস লাবুশানে। ৩৮ বলে ফিফটি ছোঁয়ার পর ম্যাজিক ফিগার ছুঁতে খরচ করেন মাত্র ২৪টি বল। অর্থাৎ ৬২ বলেই ক্যারিয়ারের একাদশ শতক তুলে নেন স্মিথ। ছোট পান্ডিয়া যখন তাকে ফেরান, তখন অজিদের স্কোর ৪২তম ওভারে ২৯২। 

এরপর লাবুশানে ৬১ বলে ৭০ রান এবং ম্যাক্সওয়েল ব্যাটে সাইক্লোন ছুটিয়ে মাত্র ২৯ বলে ৬৩ রান করলে ৩৮৯ রানের পাহাড়সম স্কোর দাঁড় করায় অস্ট্রেলিয়া। 

জবাব দিতে নেমে প্রথম ওয়ানডের মতোই ভালো শুরু করেন ভারতীয় ওপেনিং জুটি। শিখর ধাওয়ান এবং মায়াঙ্ক আগারওয়াল প্রতি ওভারে প্রায় সাড়ে ৭ রান করে তুললেও এই খেলা ধরে রাখতে পারেননি বেশিক্ষণ। অষ্টম ওভারেই পতন ঘটে ওপেনিং জুটির। 

দলীয় ৫৮ রানেই আউট হয়ে ফেরেন শিখর ধাওয়ান (২৩ বলে ৩০ রান)। গত ম্যাচে বল হাতে ভারতকে ধ্বংস করা হ্যাজেলউডের বলেই ফেরেন তিনি। ফলে ভালো শুরুটা ধরে রাখতে ফের ব্যর্থ হয় ভারত। শিখরের পরই আরেক ওপেনার মায়াঙ্ক আগারওয়ালকে (২৬ বলে ২৮ রান) ফেরালেন মিচেল স্টার্ক। 

ফিফটি পূরণের পথে বিরাট কোহলির শট...

মাত্র ৪ বলের ব্যবধানে দুই ওপেনারের বিদায় ঘণ্টা বাজায় ব্যাট হাতে বড় দায়িত্ব এসে পড়ে অধিনায়ক বিরাট কোহলি এবং শ্রেয়াস আয়ারের কাঁধে। ক্রিজে আসা এই দুই ব্যাটসম্যানের পার্টনারশিপই ঠিক করে দেবে ম্যাচের ভাগ্য। 

যদিও এখন পর্যন্ত ৯০ রান এসেছে এই জুটিতে। যাতে ভারতের স্কোর এখন ২৩ ওভারে ২ উইকেটে ১৫১ রান। বিরাট কোহলি ৫৩ রানে এবং শ্রেয়াস আয়ার ৩৭ রানে ক্রিজে আছেন।

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি