ঢাকা, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১:২৯:৩১

ঘুরে আসতে পারেন গাইবান্ধার দর্শণীয় স্থানগুলো

গাইবান্ধায় ভ্রমণের অনেক জায়গা রয়েছে তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য ,বালাসীঘাট, প্রাচীন মাস্তা মসজিদ, গাইবান্ধা পৌরপার্ক, বর্ধনকুঠি, এসকেএস ইন, ফ্রেন্ডশিপ সেন্টার, মীরের বাগানের ঐতিহাসিক শাহসুলতান গাজীর মসজিদ এছাড়াও দেখে আসতে পারেন শিবরাম আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বামনডাঙ্গার জমিদার বাড়ি, রংপুর সুগার মিলস্ লিমিটেড প্রভৃতি। বালাসীঘাট যমুনার কোলঘেসে বাঁধটি প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের কারণে ধীরে ধীরে আকর্ষণীয় হয়ে উঠে। শুধু ছুটির দিনেই নয় প্রত্যেকদিনই এখানে ভ্রমণপিপাসুদের ভিড়। বন্ধুবান্ধর নিয়ে এখানে ঘুড়তে আসেন। আবার অনেকেই সপরিবারে সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এখানেই কাটিয়ে দেন।  শুধু উৎসব কিংবা দিবস নয় সারাবছরই ভ্রমনপিপাসু মানুষের ভিড় লেগেই থাকে। নিজের পছন্দমেতো জায়গা থেকে দাড়িয়ে নদীর বুকে সুর্যাস্তের দৃর্শ উপভোগ করা যায়। শুধু জেলা শহর থেকে নয় সারা বাংলাদেশ থেকেই ভ্রমণপ্রিয় মানুষরা এখানে আসেন। বৃহত্তর ময়মনসিংহের বিভিন্ন জেলার সঙ্গে উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন জেলার মধ্যে যাত্রী ও মালামাল পারাপারের জন্য ফেরি সার্ভিস চালু হয়। পরে ফেরিঘাটটি তিস্তামুখঘাট থেকে বালাসী ঘাটে স্থানান্তর করা হয়। যেভাবে যাবেন- প্রথমে বাস অথবা ট্রেনযোগে গাইবান্ধা জেলা শহরে আসতে হবে। গাইবান্ধা জেলা বাসস্ট্যান্ড হতে যাওয়ার উপায়- অটোরিক্সা, রিক্সা ও সিএনজি যোগে যাওয়া যায়। অটোরিক্সা ভাড়া-১৫০ টাকা, রিকসা ভাড়া- ৮০-১০০ টাকা। গাইবান্ধা পৌরপার্ক-   গাইবান্ধায় রয়েছে পৌরসভার অধীন পার্ক। পার্কের পুকুর পাড়ে রয়েছে সব বয়সের মানুষের জন্যই বিনোদনের ব্যবস্থা, সকাল থেকে সন্ধ্যা দর্শনার্থীদের ভিড় লেগেই থাকে। বিভিন্ন উৎসরের সময় দর্শনার্থীদের ভিড় সারা বছরের অন্যান্য দিনের চেয়ে আরও অনেকটাই বেড়ে যায়।           যেভাবে যাবেন- গাইবান্ধা জেলা বাসস্ট্যান্ড  থেকে রিকসা অথবা অটোরিকসা দিয়ে যেতে পারেন এ পৌরাপার্কে। বর্ধনকুঠি- গাইবান্ধার গোবিন্ধগঞ্জে কালের সাক্ষি হয়ে দাড়িয়ে আছে বিধ্বস্ত রাজবাড়িটি, রাজবাড়ির ভাঙা অংশ মনে করিয়ে দেয় তার প্রাচীন অবস্থার কথা। ভঙ্গুর দেওয়ালগুলি আপনাকে তার অতীতের কথাই মনে করিয়ে দিবে। যেভাবে যাবেন- গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ হতে অটো বা সিএনজিতে করে যেতে পারেন রাজবাড়িটিতে। এসকেএস ইন- গাইবান্ধা শহরের অদূরে রাঁধাকৃষ্ণপুর  (তিন গাছ তল) এক সুন্দর মনোরম পরিবেশ, নয়নাভিরাম সবুজের ওপর গড়ে উঠেছে এই রিসোর্ট। সুন্দর নাম বিশিষ্ট ছোট ছোট কটেজ, বিশাল অডিটরিয়াম, সুন্দর ঝর্ণা, গাইবান্ধায় প্রথম বারের মতো আধুনিক সুমিংপুল ও আশেপাশের সবুজ সমারোহ। যেভাবে যাবেন-  গাইবান্ধা থেকে রিকসা, অটোরিকসা খুব সহজেই যেতে পরেন। ফ্রেন্ডশিপ সেন্টার- শুধু গাইবান্ধা কিংবা বাংলাদেশ নয় ফ্রেন্ডশিপ সেন্টারটি অবাক করেছে সারা বিশ্বকে। ফ্রেন্ডশিপ সেন্টারটি বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থার কার্যালয়। ভবনটির ছাদ ভূমি সমতলে আর বাকি অংশটুকু মাটির নিচে অবস্থিত। ছাদটা যেন বিভিন্ন ধরনের ঘাষের মাঠ। স্থাপত্য শিল্পে এক অনবদ্য সৃষ্টিটি অবাক করেছে বিশ্বকে। ভবনটি দেখতে প্রতিদিনই হাজারো দর্শনার্থী ভিড় করে। ভবনটির ভিতরের সবকিছুও দৃষ্টিন্দন। যেভাবে যাবেন – গাইবান্ধা থেকে রিকসা, অটোরিকসা ও মোটরসাইকেল ভাড়া করে যেতে পারেন ফ্রেন্ডশিপ সেন্টারে।  শিবরাম আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়- বাংলাদেশের শ্রেষ্ঠ ও জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত শিবরাম আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার সোনারায় ইউনিয়নে ছাইতানতোলা গ্রামে অবস্থিত বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯১৬ সালে। পরে এটি জাতীয়করণ হয় ১৯৭৩ সালে। বিদ্যালয়টি মোট ২.২৮৫ একর জমির ওপর অবস্থিত। এখানে রয়েছে একটি পাঁচ তলা ভবন, দুটি দ্বিতল ভবন, পাঁচটি অর্ধ দালান। ভবনগুলোতে রয়েছে একটি প্রধান শিক্ষকের কক্ষ, একটি সহকারী শিক্ষকদের কক্ষ, ২২টি শ্রেণি কক্ষ, একটি সভা কক্ষ,একটি ক্লিনিক কক্ষ, একটি অতিথি কক্ষ, একটি উপকরণ কক্ষ, একটি ভৌগলিক কক্ষ, একটি কম্পিউটার কক্ষ, একটি বিজ্ঞানাগার, একটি ছাত্রাবাস ভোজনালয় প্রভৃতি। এছাড়া রয়েছে শিশুদের জন্য বিশাল মাঠ, শহীদ মিনার, মসজিদ, পোস্ট অফিস, সরকারি ক্লিনিক, মডেল চিড়িয়াখানা ইত্যাদি। বিদ্যালয়টিতে বর্তমানে ১০৫৩ জন শিক্ষার্থী, ১৫ জন সরকারি ও ৫৮ জন বেসরকারি শিক্ষক রয়েছে। বিদ্যালয় চত্তরে রয়েছে দীপশিখা নামের একটি ছাত্রাবাস। যেখানে ১২০ আবাসিক শিক্ষার্থী অবস্থান করছে। প্রতিদিন দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে দর্শনার্থীরা পরিদর্শনে আসে। যেভাবে যাবেন- গাইবান্দা সদর থেকে বাসে বা ট্রেন যোগে যেতে পারেন। প্রাচীন মাস্তা মসজিদ স্থাপত্যের এক অপার নিদর্শন মাস্তা মসজিদ। প্রাচীন এই মসজিদটির চার কোণে রয়েছে চারটি স্তম্ভ, একই আকারের তিনটি গম্বুজ  ও আছে, মসজিদটির তিনটি দরজা থাকলেও  কোন জানালা নেই । সব মিলিয়ে মসজিদটির দৈর্ঘ্য প্রায় ৩৫ ফুট এবং প্রস্ত প্রায় ১৬ ফুট । মসজিদটিতে এখনো এলাকার লোকজন নামাজ আদায় করে। গাইবান্ধার গোপালগঞ্জের কামারদহ ইউনিয়নের  মাস্তা গ্রামের প্রাচীন লাল মসজিদটিই `মাস্তা  মসজিদ` নামে পরিচিত । যেভাবে যাবেন- গাইবান্ধা হতে গোবিন্দগঞ্জ সেখান থেকে কামারদহ ইউনিয়নের ফাঁসিতলা বাজার থেকে প্রায় এক কিলোমিটার. উত্তরে মহাসড়কের পশ্চিম পার্শ্বে মাস্তা মসজিদ অবস্থিত। যে কোনো যানবাহন ব্যবহার করে মাস্তা মসজিদে যেতে পারেন। সবচেয়ে সহজে যেতে চাইলে সিএনজিতে যেতে পারেন। বামনডাঙ্গার জমিদার বাড়ি- সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বামনডাঙ্গার সর্বানন্দ ইউনিয়নের রামভদ্র গ্রামের জমিদার বাড়ির ঐতিহাসিক নিদর্শন। উত্তর জনপদের বামনডাঙ্গার এ অঞ্চলে এই জমিদারদের গোড়াপত্তন কবে হয়েছিল বা কে করেছেন সে সম্পর্কে সঠিক কোন তথ্য এখনও নির্ধারণ করা যায়নি। তবে কথিত আছে যে, পঞ্চদশ শতকের কোন এক সময়ে সম্রাট আকবরের আমলে পরাজিত ও রাজ্যচ্যুত গৌড় বংশীয় ব্রাহ্মণ কৃষ্ণকান্ত রায় পালিয়ে এখানে আসেন এবং বসবাস শুরু করেন। পরবর্তীতে তার আমলেই বামনডাঙ্গার এই জমিদারদের নামডাক ছড়িয়ে পড়ে। তাদের সময়ে এই এলাকার প্রজাদের মধ্যে সর্বত্র সুখ-শান্তি এবং আনন্দ বিরাজমান ছিল। এ ছাড়া জমিদাররা সুশীল এবং ভদ্র। এ কারণেই ওই এলাকার নাম হয়েছিল সর্বানন্দ। যেভাবে যাবেন- গাইবান্ধা থেকে ট্রেন বা বাসে যেতে পারেন।   এসএইচ/                          

নির্মল বিনোদনের খোঁজে নীলফামারী

শত ব্যস্ততার মাঝে, হাজারও কাজের ফাঁকে মানুষ চায় একটু প্রশান্তি, বিনোদন। মনে ছুটে যায় দূর-দূরান্তে। চোখ মেলে প্রকৃতিকে একটু দেখতে, চোখ জুড়াতে। অবসরে আপনিও ঘুরে আসতে পারেন দেশের বিভিন্ন পর্যটন এলাকা। এদেশে ভ্রমণপ্রেমীদের জন্য আদর্শ একটি স্থান হচ্ছে নীলফামারী। এ জেলার পর্যটন এলাকাগুলো সারা বছরই দর্শণার্থীদের পদচারণায় মুখর থাকে। নীলফামাররীতে যে কয়েকটি পর্যটন এলাকা রয়েছে তার মধ্যে অন্যতম দর্শনীয় স্থান চিনি মসজিদ, নীল সাগর, কুন্দ পুকুর মাজার, যাদুঘর , হরিশ্চন্দ্রের পাঠ, ভিমের মায়ের চুলা, নীল কুঠি , ধর্মপালের রাজবাড়ী প্রভৃতি।          নীলসাগর   নীল সাগর কোনো সাগর নয়; একটি দিঘির নাম। ১৯৮২ সালে এর নামকরণ করা হয় নীল সাগর। মৎস্য শিকারীদের জন্য আদর্শ জায়গা এই নীল সাগর। মাছ শিকারের জন্য টিকিটের মূল্য এক হাজার টাকা। নির্দিষ্ট সময় ১৪ এপ্রিল থেকে নভেম্বরে অতিথি পাখি আসার আগ পর্যন্ত এ সুযোগ পান তারা। বারুণী স্নান উৎসব দেখেতে যেতে পারেন নীলফামারীর নীল সাগরে। বৈশাখী পূর্নিমায় দিঘির পাড়ে অনুষ্ঠিত হয় হিন্দু সম্প্রদায়ের ‘বারুণী স্নান উৎসব’। নীলফামারীর নীল আর  সাগরের সাগর থেকেই নীল সগর নামের উৎপত্তি হয়েছে বলে জনশ্রুতি রয়েছে। নীল সাগর নামের বিশাল দিঘিটি নীলফামারীর সবচেয়ে আকর্ষণীয় পর্যটন স্থান। দিঘিটির জল ভাগের আয়তন প্রায় ৩৪ একর হলেও মোট আয়তন ৫৪ একর। জলের গভীরতা বেশিব ভাগ সময়ই সাত মিটার থেকে ১২ মিটার থাকে। দিঘিতে দুটি ঘাট রয়েছে । একটি ঘাট পূর্ব পাড়ে এবং অপর ঘাটটি রয়েছে পশ্চিম পাড়ে। ঘাট দুটিই ইটের তৈরি। দিঘির একপাশে হিন্দু সম্প্রদায়ের শিব মন্দির, অপর পাশে মুসিলিম সম্প্রদায়ের মুসলিম দরবেশের আস্তানা ছিল। দিঘির পাড়ে রয়েছে বিভিন্ন প্রজাতির গাছ। পাড়গুলি সমতল ভুমি থেকে একটু উচু, পাড়ে রয়েছে পর্যটকদের বসার জন্য অনেকগুলি স্থান। যেভাবে যাবেন নীলফামারী সদর থেকে বাসযোগে নীলসাগর যাওয়া যায়। নীলফামারীর গড়গ্রাম ইউনিয়নের ধোবাডাঙ্গা গ্রামে অবস্থিত নীলসাগর দিঘিটি । দিঘির পাড়ে পর্যটকদের থাকার জন্য রুম রয়েছে । রুম ভাড়া ২০০ থেকে ৪০০ টাকা। যাদুঘর প্রত্নতাত্বিক নিদর্শন দেখতে যেতে পারেন নীলফামরী যাদুঘরে। নীলফামারীতে একটি যাদুঘরও রয়েছে। সারা বছরই হাজারো মানুষের ভিড় করে যাদুঘরে । ব্রিটিশ ও ভারত উপমহাদেশের বিভিন্ন প্রত্নতাত্বিক নিদর্শন সেখানে যত্নসহকারে সংরক্ষণ করা হয়েছে। যেভাবে যাবেন নীলফামারী ডিসি অফিসের পুরাতন ভবনে অবস্থিত যাদুঘরটিতে রিক্সা / অটোরিক্ষা যোগে যাওয়া যায়। হরিশ্চন্দ্রের পাঠ হরিশচন্দ্রের পাঠ বা রাজবাড়ীটি পাথর খণ্ডে পরিপূর্ণ প্রাচীন ধ্বংসাবশেষের টিলা। চাড়াল কাটা নদীর তীরে প্রায় এক বিঘা জমির ওপর একটি উচু ঢিবি । ঢিবির ওপর পাঁচ খণ্ড বড় কার রংঙের পাথর রয়েছে। স্থানীয়রা বিশ্বাস করে ঢিবিটি মাটিতে ডুবে যায় আবার মাটির ওপরে উঠে আসে।   যেভাবে যাবেন হরিশচন্দ্রের পাঠ বা রাজবাড়ীটি নীলফামারীর জলঢাকা থানার খুটামার ইউনিয়নে অবস্থিত। নীলফামারী সদর থেকে সড়ক পথে খুটামারা হয়ে হরিশচন্দ্রের পাঠ বা রাজবাড়ীতে যাওয়া যায়। ভিমের মায়ের চুলা ভিমের মায়ের চুলা তিন দিকে উচু মাটির প্রাচীর বিষ্টেত স্থাপনা। প্রাচীরের তিনটি স্থান অপেক্ষাকৃত উচু। ভিমের মায়ের চুলার ভিতরের অংশ এবং বাহিরের অংশের তিন দিক পরিখা বেষ্টিত। যেভাবে যাবেন নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলা কমপ্লেক্সের পাশেই রয়েছে ভিমের মায়ের চুলা। সড়ক পথে নীলফামারী থেকে কিশোরগঞ্জ উপজেলা হয়ে ভিমের মায়ের চুলা দেখতে যাওয়া যায়। নীল কুঠি নীল কুঠি শব্দটার আমরা শুনেছি। নীল কুঠি সম্পর্কে আমরা অনেকেই জানি, কিন্তু কখনও নীল কুঠি দেখা হয়নি, তাহলে যেতে পারেন নীলফামারীর নীল কুঠিতে। ব্রিটিশ আমলে নীল কুঠিয়ালদের কুঠি হিসেবে ব্যবহৃত নীল কুঠিটি এখন ব্যবহৃত হচ্ছে নীলফামারী অফিসার্স ক্লাব হিসেবে । যেভাবে যাবেন নীলফামারী শহর থেকে সড়কপথে খুব সহজেই যাওয়া যায় নীল কুঠি দেখতে। ধর্মপালের রাজবাড়ী ধর্মপালের গড়ের কাছাকাছি একটি মজা জলাশয় রয়েছে, জলাশয়ের পাড় বাধানো ঘাট এবং কয়েক ফুট উচু ঢিবি রয়েছে, এই ঢিবির ভিতরের প্রাচীরে ইট দেখেই ধারনা করা হয় এটি ধর্মপালের রাজবাড়ি। গড় ধর্মপালের কাছাকাছি নদীর তীরে ধর্মপালের রাজ প্রাসাদ ছিল। যেভাবে যাবেন নীলফামারী শহর থেকে সড়কপথে অল্প সময়ের মধ্যেই যাওয়া যায়  ধর্মপালের রাজবাড়ী। কুন্দ পুকুর মাজার   এখানে মসজিদ,  হেফজখানা এবং একটি বড় পুকুর রয়েছে। এখানে প্রতিবছরই বার্ষিক ওরশ হয়। ওরশের তারিখ ৫ মাঘ। সারাদেশ থেকেই অসংখ্য দর্শক এখানে আসেন। যেভাবে যাবেন কুন্দুপুর মাজারটি জেলা সদর থেকে পাঁচ কিলোমিটার দূরত্বে নীলফামরী সদর থেকে কুন্দুপুর ইউনিয়নে কুন্দুপুর মাজার অবস্থিত। নীলফামারী থেকে সড়ক পথে খুব সহজেই কুন্দুপুকুর  মাজারে যাওয়া যায় । চিনি মসজিদ শতশত দক্ষ কারিগরের পরিশ্রম আর শিল্পীর একনিষ্ঠ শ্রমের দ্বারাই ১৮৬৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল চিনি মসজিদ। সুন্দর এ সমজিদটির গায়ে রয়েছে শংকর মর্মর পাথর। পাথরের সঙ্গে লাগানো হয়েছিল চীনা মাটির চুকড়ো যার ওজন প্রায় ২৫ টন। মসজিদের ২৭টি মিনারের মধ্যে পাঁচটি মিনার এখন পর্যন্ত সম্পূর্ণ অক্ষত রয়েছে। যেভাবে যাবেন নীলফামারী থেকে সজক পথে সৈয়দপুর রেলওয়ে স্টেশনে নেমে রিক্সা যোগে যাওয়া যায় চিনি মসজিদ। সৈয়দপুর থেকে সড়ক পথেও চিনি মসজিদ যাওয়া যায়।   এসএইচ/ এআর        

৬ বিষয়ে প্রভাষক নিয়োগ দিবে রংপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক কলেজ

নতুন করে প্রভাষক নিয়োগ দেওয়ার জন্য নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে রংপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ। প্রতিষ্ঠানটিতে ছয় বিষয়ে প্রভাষক নিয়োগ দেওয়া হবে। বিষয় ও পদ সংখ্যা: প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী বাংলা-১, অর্থনীতি-১, রসায়ন-১, গণিত-১, জীববিজ্ঞান-১, উৎপাদন ব্যবস্থাপনা ও বিপণন-১জন করে প্রভাষক নিয়োগ দেওয়া হবে। যোগ্যতা: সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ন্যূনতম দ্বিতীয় শ্রেণির অনার্সসহ দ্বিতীয় শ্রেণির স্নাতকোত্তর ডিগ্রি/ সমমানের জিপিএ প্রাপ্ত এবং সকল পরীক্ষায় ন্যূনতম দ্বিতীয় শ্রেণি/সমমানের জিপিএ থাকতে হবে অথবা স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ৪ বছর মেয়াদী ন্যূনতম দ্বিতীয় শ্রেণির অনার্স ডিগ্রি/ সমমানের জিপিএ থাকতে হবে। বেতন: নিয়োগ প্রাপ্তদের (২২০০০-৫৩০৬০) স্কেলে মাসিক বেতন ও অন্য সুবিধা প্রদান করা হবে। আবেদন প্রক্রিয়া: স্বহস্তে লিখিত দরখাস্তে নাম, পিতার নাম, স্থায়ী ঠিকানা, বর্তমান ঠিকানা, মোবাইল নম্বর ও শিক্ষাগত যোগ্যতার বিবরণসহ অন্য উপযুক্ততা (যদি থাকে) উল্লেখপূর্বক সকল সনদপত্রের সত্যায়িত ফটোকপি ও সদ্য তোল পাসপোর্ট আকারের ২ কপি সত্যায়িত ছবি এবং অধ্যক্ষ, ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ রংপুর এর অনুকূলে ১০০০/- (এক হাজার) ঢাকার এমআইসিআর পে-অর্ডার/ব্যাংক ড্রাফট ‘অধ্যক্ষ, ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ রংপুর’-এই ঠিকানায় পাঠাতে হবে। আবেদনের সময়সীমা: আগ্রহী প্রার্থীরা আগামী ৫ ডিসেম্বর, ২০১৭ তারিখ পর্যন্ত আবেদন করতে পারবে।   বিস্তারিত জানতে বিজ্ঞপ্তি দেখুন  

এক মাঠে দুই গ্রুপের টুর্নামেন্ট, ১৪৪ ধারা জারি

রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার মাদারপুর চরে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য ও মেয়রের সমর্থকরা একই সময়ে একই স্থানে ক্রিকেট খেলার আয়োজন করেছে। দুই গ্রুপের উত্তেজনার পরিপ্রেক্ষিতে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সেখানে ১৪৪ ধারা জারি করেছে স্থানীয় প্রশাসন। গতকাল শনিবার রাত ১০টার দিকে গোদাগাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জাহিদ নেওয়াজ ১৪৪ ধারা জারি করেন। আজ রোববার মাদারপুর চরে এই ক্রিকেট খেলা শুরু হওয়ার কথা ছিলো। ১৪৪ ধারার বিষয়টি মাইকিং করে এলাকাবাসীকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। নিষেধাজ্ঞায় বলা হয়েছে, ২৬ নভেম্বর রোববার সকাল ৬টা থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত মাদারপুর চরের টুর্নামেন্ট মাঠ ও আশপাশের এলাকায় সব ধরনের খেলার আয়োজন এবং সমাবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হলো। জানা গেছে, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ও গোদাগাড়ী পৌরসভার মেয়র মনিরুল ইসলাম বাবুর আর্থিক সহযোগিতায় তার সমর্থকরা উপজেলার মাদারপুর রেলবাজার পদ্মাপাড়ে মেয়র গোল্ডকাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের আয়োজন করে। আজ রোববার বিকেল ৩টায় এ টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করার কথা ছিল। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মেয়র মনিরুল ইসলাম বাবু সভাপতি হিসেবে থাকার কথা ছিলো। অন্যদিকে, স্থানীয় সংসদ সদস্য (এমপি) ওমর ফারুক চৌধুরীর সমর্থকরা রেলবাজারে অবস্থিত শেখ রাসেল স্মৃতি সংসদের আয়োজনে একই মাঠে শেখ রাসেল গোল্ডকাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের আয়োজনের ঘোষণা দিয়ে চিঠি বিতরণ করে। একই সময় তাদের আয়োজিত টুর্নামেন্টের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি করা হয় উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি বদিউজ্জামানকে। স্থানীয় আওয়ামী লীগের শক্তিশালী দুইপক্ষের সমর্থকরা একই স্থানে একই সময় পাল্টাপাল্টি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের আয়োজন করায় এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। অনাকাঙ্কিত পরিস্থিতি ঘটার সম্ভাবনা রয়েছে। তাই বিষয়টি সমঝোতা না হওয়া পর‌্যন্ত ইউএনও সেখানে ১৪৪ ধারা বলবৎ থাকবে।                                                                                    //এমআর / এআর  

টিটু রায়ের জামিন আবেদন নামঞ্জুর

ফেসবুকে অবমাননাকর স্ট্যাটাস দেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার টিটু রায়ের জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করেছে আদালত। রোববার দুপুরে শুনানি শেষে এ আদেশ দেন রংপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আরিফুল ইসলাম। কোট সিএসআই মামুন জামিন না মঞ্জুরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এর আগে কঠোর নিরাপত্তায় টিটো রায়কে রংপুর কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে আদালতে নেওয়া হয়। পরে দুপুর ১টার দিকে তাকে আদালতে তোলা হয়। সেখানে টিটু রায়ের জামিন শুনানি করেন অ্যাডভোকেট নরেশ চন্দ্র সরকার। শুনানিতে তিনি বলেন, ‘ফেসবুকে মহানবী সম্পর্কে যে স্ট্যাটাস দেওয়া হয়েছে তা টিটু রায় দেয়নি। তা ছাড়া ওই ফেসবুক অ্যাকাউন্টও টিটু রায়ের না। ওই ফেসবুক অ্যাকাউন্ট এমডি টিটুর। সে মহানবী সম্পর্কে এ ধরনের অবমাননাকর স্ট্যাটাসও দেয়নি। তাকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এ কারণে তাকে জামিন দেওয়ার জন্য আবেদন জানাচ্ছি। নরেশ চন্দ্র সরকার ছাড়াও ১০/১২ জন আইনজীবী এ জামিন শুনানির সময় উপস্থিত ছিলেন। তবে এই জামিনের আবেদনের বিরোধিতা করে কোট সিএসআই মামুন বলেন, এখনও মামলার তদন্ত চলছে। এ অবস্থায় তাকে জামিন দেওয়া হলে তদন্তে ব্যাঘাত হতে পারে। তাছাড়া মহানবী সম্পর্কে আপত্তিকর স্ট্যাটাস দেওয়ার ঘটনায় ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়া হয়েছে। সে কারণে তিনি জামিন না দেওয়ার জন্য জোরালো আপাত্তি জানান। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালত আসামি টিটু রায়ের জামিন আবেদন নামঞ্জুর না করে তাকে কারাগারে পাঠানের নির্দেশ দেন। আগামী ১০ ডিসেম্বর মামলার পরবর্তী তারিখ ধার্য করেছে আদালত। এসএইচ/

ছাত্র-শ্রমিক সংঘর্ষ: দিনাজপুরে লাগাতার পরিবহন ধর্মঘট

দিনাজপুরে বুধবার রাত থেকে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট চলছে। হাজী দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) ছাত্রদের ভাঙচুরে ক্ষতিগ্রস্ত যানবাহনের ক্ষতিপূরণ ও জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে এ ধর্মঘট ডাকা হয়েছে। ফলে সারাদেশের সঙ্গে দিনাজপুরের যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। বুধবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি বাস শহরের কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল অতিক্রম করছিল। এ সময় সাইড দেওয়াকে কেন্দ্র করে ছাত্রদের সঙ্গে শ্রমিকদের সংঘর্ষ হয়।এতে পাঁচজন শিক্ষার্থী আহত হন। এ সময় বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীরা দুটি বাসে অগ্নিসংযোগসহ কয়েকটি গাড়ি ভাংচুর করে। সংঘর্ষের খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আগুন নেভাতে গেলে ছাত্ররা তাদের ধাওয়া করে। পরবর্তীতে পুলিশের সহায়তায় তারা আগুন নেভায়। দাবি মেনে না নেওয়া পর্যন্ত ধর্মঘট চলবে বলে জানিয়েছেন, দিনাজপুর মোটর পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ফজলে রাব্বী। / এআর /

তারাগঞ্জে হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

রংপুরের তারাগঞ্জে হিন্দু সম্প্রদায়ের ঘর-বাড়ি, মন্দির ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা, ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের সঙ্গে জড়িতদের বিচারের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ। শনিবার  যশোরের শার্শায় বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ উদ্যোগে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে ব্যক্তরা এ দাবি জানান। বক্তারা বলেন, এই হামলার সঙ্গে জড়িত যেই হোক না কেন তাদেরকে বিচারের আওতায় এনে শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। একইসঙ্গে  ধর্মীয় সংখ্যালঘু নির্যাতন রোধে এবং হিন্দু ধর্মালম্বীদের নিরাপত্তায় রাষ্ট্রকে আরও গুরু দায়িত্ব পালনের দাবি জানান সংগঠনের নেতারা। মানবন্ধনে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ শার্শা উপজেলা শাখার সহ-সভাপতি পরিতোষ কুমার সর্দারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ যশোর জেলা সভাপতি অসীম কুমার কুন্ডু। বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন জেলা সাধারণ সম্পাদক যোগেশ দত্ত। এ সময় আরও বক্তব্য দেন শার্শা শাখার সাধারণ সম্পাদক বৈদ্যনাথ দাস, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সুকুমার দেবনাথ, জয়দেব সিংহ, সাধন গোস্বামী, শান্তিপদ গাঙ্গুলী প্রমূখ। / এআর /

টিটু রায় চার দিনের রিমান্ডে

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হেনে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার টিটু রায়ের চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। বুধবার দুপুরে রংপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দীপাংসু কুমার রায় এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। একইসঙ্গে রিমান্ডে থাকার সময় তার শারীরিক অবস্থা পরীক্ষা করে আদালতে প্রতিবেদন দাখিলেরও নির্দেশ দিয়েছে আদালত। এর আগে বুধবার দুপুর সোয়া ১টার দিকে শতাধিক পুলিশের কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে প্রিজনভ্যানে করে আদালতে হাজির করা হয় টিটু রায়কে। তার ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের এসআই বাবুল হোসেন। তিনি আবেদনে বলেন, ‘আসামি নিজে হিন্দু সম্প্রদায়ের হলেও এমডি টিটু নাম দিয়ে ফেসবুকে একটি আইডি খোলেন। এই আইডির মাধ্যমে তিনি ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করার জন্য একটি স্ট্যাটাস দেন। প্রাথমিক তদন্তে এ বিষয়ে তার জড়িত থাকার প্রমাণ মিলেছে। এখন এ ঘটনার মূল গডফাদার, ইন্ধনদাতাসহ কারা কারা তার সঙ্গে জড়িত তাদের নাম-ঠিকানাসহ সার্বিক বিষয়ে আরও তথ্যের প্রয়োজন। তাকে ১০ দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা দরকার।’ শুনানি শেষে বিচারক তার চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। মঙ্গলবার ভোরে নীলফামারীর জলঢাকার গোলনা ইউনিয়নের চিড়াভিজা গোলনা গ্রাম থেকে টিটু রায়কে গ্রেফতার করা হয়। সোমবার সন্ধ্যায় টিটু রায় গোলনা গ্রামে তার দূর সম্পর্কের আত্মীয় কৈলাশ চন্দ্র রায়ের বাড়ি বেড়াতে আসে। সেখান থেকে মঙ্গলবার ভোরে চারটি গাড়িতে পুলিশের একটি দল এসে তাকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। পরে ঠাকুরপাড়া গ্রাম পরিদর্শনের সময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল তার গ্রেফতারের খবর নিশ্চিত করেন।  এদিকে রংপুর ডিবি পুলিশের ওসি শরিফুল ইসলাম বলেন, ‘ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ার ঘটনায় স্থানীয় খলেয়া বাজারের ব্যবসায়ী রাজু মিয়া বাদী হয়ে তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলা দায়ের করেন। মামলাটি বুধবার তদন্তের জন্য ডিবি পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। আমরা এরইমধ্যে তদন্ত শুরু করেছি।’ এদিকে রংপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকির হোসেন জানান, ঠাকুরপাড়ায় তাণ্ডবের ঘটনায় গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ নিয়ে গত ছয় দিনে ১৫৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাণ্ডবের ঘটনায় তিনটি মামলা হয়েছে। একটি ঠাকুরপাড়া গ্রামে হামলা, অগ্নিসংযোগ ও মালামাল লুট করার ঘটনায়। অপরটি পুলিশের ওপর হামলা ও সরকারি কাজে বাধা দান সংক্রান্ত। দুটি মামলারই বাদী পুলিশ। আর টিটু রায়ের বিরুদ্ধে তথ্য প্রযুক্তি আইনের মামলার বাদী স্থানীয় ব্যবসায়ী রাজু মিয়া। পুলিশ জানায়, ঠাকুরপাড়ায় হামলার ঘটনায় এখন পর্যন্ত মূল সন্দেহভাজন বিএনপি নেতা এনামুল হক মাজেদী, মাসুদ রানা, ডাঙ্গিরহাট কলেজের অধ্যক্ষ বিএনপি নেতা রফিকুল ইসলাম, জেলা পরিষদের প্রকৌশলী ফজলার রহমানসহ ইন্ধন ও অর্থের জোগানদাতাদের কাউকেই গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। রংপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকির হোসেন জানান, মামলার এজাহার নামীয় দুই আসামি জামায়াত নেতা সিরাজুল ইসলাম ও তার ছেলে তারেককে মঙ্গলবার গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য আসামিদের গ্রেফতার করার অভিযান চলছে। উল্লেখ্য, ফেসবুকে বিতর্কিত স্ট্যাটাসের অভিযোগ তুলে শুক্রবার টিটু রায়ের গ্রাম ঠাকুরপাড়ায় হামলা চালানো হয়। পুলিশ জানায়, শুক্রবার জুমার নামাজের পর আশেপাশের ৬-৭টি গ্রামের প্রায় ২০ হাজার মানুষ ঠাকুরপাড়া গ্রামে হামলা চালায়। এ সময় পুলিশের সঙ্গে জনতার সংঘর্ষ হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ গুলি চালালে ছয় জন আহত হন। পরে আহতদের একজন মারা যান। ওইদিন ঠাকুরপাড়ার অন্তত ৩০টি বাড়িতে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হয়, ভাঙচুর করা হয় ২০টি বাড়ি। হামলাকারীরা বাড়িঘরের মালামাল, বাসনপত্র, গরু-ছাগলও লুট করে নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ করেছেন গ্রামবাসী।   এসএইচ/

ঠাকুরপাড়ায় পুলিশের ভূমিকায় আইজিপির অসন্তোষ

রংপুরের সদর উপজেলার পাগলাপীর ঠাকুরপাড়া গ্রামে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলার ঘটনায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ভূমিকা নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন পুলিশের আইজিপি এ কে এম শহীদুল হক। মঙ্গলবার  ঠাকুরপাড়ায় ক্ষতিগ্রস্ত বাড়িঘর পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।  তিনি বলেন, ‘ঠাকুরপাড়া গ্রামে তাণ্ডবের বিষয়টি কয়েকদিন আগে থেকে জানা ছিল। এরপরও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেয়নি। এ ক্ষেত্রে কমিউনিটি পুলিশিং ইউনিট ও সরকারি দলের সহায়তা নিয়ে সবাই মিলে প্রতিরোধ করা দরকার ছিল।’ শহীদুল হক বলেন, ‘ফেসবুকে যে আইডি থেকে স্ট্যাটাস দেওয়া হয়েছে সেই টিটু রায়কে মঙ্গলবার গ্রেফতার করা হয়েছে। সে যদি ধর্মের অবমাননা করে স্ট্যাটাস দিয়ে থাকে এবং সেটা যদি প্রমাণিত হয় তাহলে তার বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ আইজিপি আরও বলেন, ‘আমাদের চোখ কান খোলা রাখতে হবে। এ ক্ষেত্রে রুলিং পার্টির দায়িত্ব একটু বেশি।’ সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে এই অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানান তিনি।   এসএইচ/

রংপুরে দুই হাজার জনকে আসামি করে পুলিশের মামলা

রংপুরে মহানবী হযরত মোহাম্মাদ (সা.) কে নিয়ে ফেসবুকে কটূক্তির জেরে হিন্দু বাড়িতে হামলা, ভাঙ্গচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় গঙ্গাচড়া থানায় ২৫-৩০ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত ২ হাজার জনকে আসামি করে পৃথক দুটি মামলা করেছে পুলিশ। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকির হোসেন (বিশেষ শাখা) জানান, পুলিশ বাদী হয়ে গঙ্গাচড়া ও কোতয়ালি থানায় পৃথক দু’টি মামলা করেছে। এ মামলায় এখন পর্যন্ত ৫৩ জনকে আটক করা হয়েছে বলে জানান তিনি। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পুলিশের অভিযান শুরুর পর থেকে ঘটনাস্থলের আশপাশের ৪-৫ গ্রাম পুরুষশূন্য হয়ে পড়েছে। ওইসব এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। যারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন তারা সবাই হিন্দু সম্প্রদায়ের। রাতের বেলায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের লোকজনকে পুলিশ পাহারায় ঠাকুর প্রাইমারি স্কুলে রাখা হয়েছিল। তাদের খাবারের ব্যবস্থা করছে জেলা প্রশাসন। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নগদ তিন হাজার টাকা ও দুই বান্ডিল করে টিন প্রদান করা হয়েছে। অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করে ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনের কাজ অব্যাহত রয়েছে। এদিকে এ ঘটনা খতিয়ে দেখতে একটি উচ্চতর তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। শুক্রবার রাত ৮টায় রংপুর সার্কিট হাউস মিলনায়তনে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গার উপস্থিতিতে এ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবু রাফা মোহাম্মদ আরিফকে প্রধান করে তিন সদস্যের ওই তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিভাগীয় কমিশনার কাজী হাসান আহম্মেদ। কমিটির অন্য দুই সদস্য হলেন- অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্কেল-এ) সাইফুর রহমান ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জিয়াউর রহমান। কমিটিকে আগামী ৭ দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। উল্লেখ্য, মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সা.) নিয়ে ফেসবুকে কটূক্তি ও অবমাননাকর ছবি পোস্ট করার অভিযোগে শুক্রবার জুমা নামাজের পর সদর উপজেলার ঠাকুরপাড়ায় হিন্দু সম্প্রদায়ের বেশ কয়েকটি বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করে বিক্ষুব্ধ মুসল্লিরা। এ সময় পুলিশ বাধা দিতে গেলে মুসল্লিদের সঙ্গে পুলিশের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ শতাধিক রাবার বুলেট ও টিয়ার শেল ছোঁড়ে। এতে এক যুবক নিহত ও অন্তত পুলিশসহ ২৫ জন আহত হয়েছেন।  আর/ডব্লিউএন

রংপুরে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় তদন্ত কমিটি

রংপুরে মহানবী হযরত মোহাম্মাদ (সাঃ) কে নিয়ে ফেসবুকে কটূক্তির জেরে হিন্দু বাড়িতে হামলা, ভাঙ্গচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা খতিয়ে দেখতে একটি উচ্চতর তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। শুক্রবার রাত ৮টায় রংপুর সার্কিট হাউস মিলনায়তনে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গাঁর উপস্থিতিতে এ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবু রাফা মোহাম্মদ আরিফকে প্রধান করে তিন সদস্যের ওই তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিভাগীয় কমিশনার কাজী হাসান আহম্মেদ। কমিটির অন্য দুই সদস্য হলেন- অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্কেল-এ) সাইফুর রহমান ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জিয়াউর রহমান। কমিটিকে আগামী ৭ দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এদিকে ফেসবুকে দেওয়া স্ট্যাটাসটি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন, কাজী হাসান আহমেদ। তিনি আরও বলেন, ক্ষতিগ্রস্থদের পূণর্বাসনে সব ধরণের সহায়তা দিতে কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। উল্লেখ্য, মহানবীকে হযরত মোহাম্মদ (সাঃ) নিয়ে ফেসবুকে কটূক্তি ও অবমাননাকর ছবি পোস্ট করার অভিযোগে শুক্রবার জুমা নামাজের পর সদর উপজেলার ঠাকুরপাড়ায় হিন্দু সম্প্রদায়ের বেশ কয়েকটি বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করে বিক্ষুব্ধ মুসল্লিরা। এ সময় পুলিশ বাধা দিতে গেলে মুসল্লিদের সঙ্গে পুলিশের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়।  পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ শতাধিক রাবার বুলেট ও টিয়ার শেল ছোঁড়ে । এতে এক যুবক নিহত ও অন্তত পুলিশসহ ২৫ জন আহত হয়েছে। এমজে/ এআর      

রংপুরে মুসল্লিদের সঙ্গে সংঘর্ষে একজন নিহত, আহত ২৫

রংপুর সদর উপজেলার খলেয়া ইউনিয়নে ফেসবুকের মাধ্যমে ধর্মীয় অনূভুতিতে আঘাতের সূত্র ধরে স্থানীয় মুসল্লিদের সঙ্গে পুলিশের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। এতে হাবিব (২৭) নামে একজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন ২৫ জন।  শুক্রবার জুমার নামাজের পর শলেয়া শাহ বাজারে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিতে পুলিশ রাবাট বুলেট ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। এতে পুলিশসহ অন্তত ১০জন আহত হন। এ সময় মুসল্লিরা ব্যাপক বিক্ষোভ করে এবং এলাকার ঠাকুরপাড়ার কয়েকটি বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করেছে। স্থানীয়রা জানান, কয়েকদিন আগে টিটু চন্দ্র নামে ওই এলাকার এক ব্যক্তি মহানবীকে (সা.) নিয়ে ফেসবুকে কটূক্তি ও আপত্তিকর ছবি পোস্ট করেন। এরই প্রতিবাদে শুক্রবার জুমার নামাজের পর স্থানীয় মুসল্লিরা পাগলাপীর বাজারে মানববন্ধন শুরু করেন। এ সময় ওই কর্মসূচিতে সংহতি জানিয়ে আশপাশের কয়েক হাজার মুসল্লি সমবেত হন। একপর্যায়ে বিক্ষুব্ধ মুসল্লিরা ঠাকুরপাড়ার দিকে অগ্রসর হতে থাকলে পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এতে পুলিশের সঙ্গে মুসল্লিদের সংঘর্ষ শুরু হয়। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে মুসল্লিরা ওই এলাকার তিনটি বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ শতাধিক রাউন্ড রাবার বুলেট ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। এতে অনেকে আহত হয়। আহতদের রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। বর্তমানে এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। ঘটনার পরপরই সেখানে উপস্থিত হন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্কেল-এ) সাইফুর রহমান। তিনি জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ চেষ্টা করছে। আশা করি খুব দ্রুতই পরিস্থিতি শান্ত হয়ে যাবে।   এসি/ডব্লিউএন  

সৈয়দপুরে উড্ডয়নের পর খুলে পড়ল বিমানের চাকা

নীলফামারীর সৈয়দপুর থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে আসা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটের চাকা খুলে পড়ে যায়।এতে বিমানটি জরুরি অবতরণ করেছে। ফলে ভয়াবহ দুর্ঘটনা থেকে অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছেন ফ্লাইটটিতে থাকা ৬৬ জন বিমানযাত্রী। বুধবার সকাল সাড়ে ৯টায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিজি-৪৯৪ ফ্লাইটটি  ৬৬ জন যাত্রী নিয়ে ঢাকার উদ্দেশে রওনা করে। ফ্লাইটটি উড্ডয়নের কিছুক্ষণ পরই সৈয়দপুরের রানওয়েতে চাকার অংশ পড়ে থাকতে দেখেন বিমানবন্দরের নিরাপত্তাকর্মীরা। সৈয়দপুর বিমানবন্দর ব্যবস্থাপক শাহিন আহমেদ গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, তেমন কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি কন্ট্রোল টাওয়ারকে জানালে সকাল সাড়ে ৯টা থেকে ১১টা পর্যন্ত ঢাকার সব ফ্লাইট ওঠানামা বন্ধ করে দেয় বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। তবে ঝুঁকির মুখে ফ্লাইটটি সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে শাহজালাল বিমানবন্দরে নিরাপদে অবতরণ করা হয়েছে। সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. বজলুর রশীদ জানান, বিমানটি নিরাপদে ঢাকায় অবতরণ করেছে এবং সৈয়দপুর বিমানবন্দরে বিমান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। এম / এআর  

২৫ কোটি টাকা না দিলে এমপি শওকতের জামিন বাতিল

নীলফামারী-৪ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) ও অর্থ মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটির সদস্য শওকত চৌধুরী ২৫ কোটি টাকা ব্যাংকে জমা না দিলে তার জামিন বাতিল করা হবে। আগামী ৫০ দিনের মধ্যে এ টাকা জমা দিতে হবে বলে আদালত রোববার এ নির্দেশ দিয়েছেন। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা দু`টি মামলার বিষয়ে জারি করা রুলের শুনানি শেষে রোববার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দেন। আদালতে কমার্স ব্যাংকের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার এম সারোয়ার হোসেন। আর শওকত চৌধুরীর পক্ষে ছিলেন আইনজীবী নুরুল ইসলাম সুজন। ২০১৬ সালের ৮ ও ১০ মে শওকত চৌধুরীসহ ব্যাংকটির ৯ জন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে রাজধানীর বংশাল থানায় দু’টি মামলা করে দুদক। বাকি আসামিরা হলেন, ব্যাংকটির ফার্স্ট অ্যাসিস্ট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট ও বংশাল শাখার সাবেক শাখা ব্যবস্থাপক হাবিবুল গনি, চাকরিচ্যুত অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. মুহাম্মদ আসাদুজ্জামান, ফার্স্ট এক্সিকিউটিভ অফিসার শিরিন নিজামী, সাবেক সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট সফিকুল ইসলাম, সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট পানু রঞ্জন দাস, সাবেক ফার্স্ট অ্যাসিস্ট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট ইখতেখার হোসেন, সাবেক অ্যাসিস্ট্যান্ট অফিসার দেবাশীষ বাউল, সাবেক এক্সিকিউটিভ অফিসার ও বর্তমানে এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের প্রিন্সিপাল অফিসার আসজাদুর রহমান। বর্তমানে জামিনে আছেন এমপি শওকত। মামলার অপর আসামিরা গত বছর জামিন চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেছেন। আবেদনে বলা হয়, প্রধান আসামি শওকত চৌধুরী জামিন পেয়েছেন। তাই তারাও জামিন পেতে পারেন। এরপর গত বছরের ২৪ নভেম্বর জামিন বাতিলে রুল জারি করেন হাইকোর্ট। ব্যারিস্টার এম সারোয়ার হোসেন বলেন, এ রুলের শুনানি শেষে রোববার রায় ঘোষণা করা হয়। রায়ে আদেশ পাওয়ার ৫০ দিনের মধ্যে ব্যাংকে ২৫ কোটি টাকা জমা না দিলে শওকত চৌধুরীর জামিন বাতিল হয়ে যাবে। আরকে//

ফের ময়নাতদন্তের জন্য সোনিয়ার লাশ উত্তোলন

দাফনের ছয় দিন পর তেঁতুলিয়ার বহুল আলোচিত কাজী শাহাবুদ্দিন বালিকা স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থী রহিমা আক্তার সোনিয়ার লাশ ফের ময়নাতদন্তের জন্য উত্তোলন করা হয়েছে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তার আবেদনের প্রেক্ষিতে জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিমের নির্দেশে আজ মঙ্গলবার দুপুরে রহিমার লাশ উত্তোলন করা হয়। গতকাল সোমবার আমলি আদালত-৪ এর জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম মো. জাহাঙ্গীর আলম পুনরায় ময়নাতদন্তের জন্য রহিমার লাশ কবর থেকে তোলার নির্দেশ দেন। পঞ্চগড় জেলা প্রশাসনের নিবার্হী ম্যাজিষ্ট্রেট সোহরাব হোসেনের উপস্থিতিতে রহিমা আক্তারের লাশ তোলা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন তেতুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সরেস চন্দ্র, মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তেঁতুলিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুস সবুর, ভাইস চেয়ারম্যান সুলতানা রাজিয়া, তেঁতুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান কাজী আনিসুর রহমান । পুলিশ সুপার মো. গিয়াসউদ্দিন আহমদ গণমাধ্যমকে জানান, প্রথম ময়নাতদন্তের প্রতিবদনে ধর্ষণের আলামত ছিল না। তাই আবার ময়না তদন্তের আবেদন করা হয়। এই মামলার দুই আসামিকে ১০ দিনের রিমান্ডে নিতে আদালতে আবেদন জানান। শুনানি শেষে আদালত ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। ধর্ষণের ভিডিও প্রকাশের ভয় দেখানোর অভিযোগ রয়েছে এলাকার মনসুর আলম রাজন (৩২) ও আতিকুর রহমান আতিক (৩৪) নামের দুই যুবকের বিরুদ্ধে। ১০ অক্টোবর আত্মহত্যা করে রহিমা আক্তার। এ ঘটনায় রহিমা আক্তারের মা বাদী হয়ে থানায় মামলা দিতে গেলে পুলিশ মামলা নিতে গড়িমসি করে। অবশেষে ঘটনার চারদিন পর গত শনিবার মামলা নেয় পুলিশ। / কেআই / এআর

মাদারীপুরে  ‘ব্লু হোয়েলে’ আসক্ত কিশোর হাসপাতালে

মাদারীপুরে কথিত ‘ব্লু হোয়েল’ গেমে আসক্ত হয়ে অসুস্থ এক কিশোর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। সোমবার রাত আটটার দিকে তাঁকে রাজৈর উপজেলার একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিশোরের পারিবারিক সূত্র জানায়, গত এক সপ্তাহ ধরে ‘ব্লু  হোয়েল’ গেমের নেশায় পড়ে। এরপর হাতে তিমি এঁকে ৭টি ধাপ অতিক্রম করে সে। এরই মধ্যে ফেসবুক বিভিন্ন পোস্টের মাধ্যমে জানতে পারে ‘ব্লু  হোয়েল’ গেম খেললে মানুষ মারা যায়। এ ধরনের খবর পড়ে সচেতন হয় ওই কিশোর। এরপর তাকে সুঁই দিয়ে হাতে একশ’ ছিদ্র করতে বলা হয়। পরে সে নিজেকে বাঁচাতে মোবাইল ফোন ভেঙে ফেলে। তাকে গতকাল রাতে একটি প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। চিকিৎসক পীযূষ চন্দ্র গণমাধ্যমকে বলেন, আমরা কিশোরটিকে কাউন্সেলিং দিচ্ছি। তার মনে এক ধরনের ভয় কাজ করছে। সে একবার বলছে, গেমটি খেলবে আবার কিছুক্ষণ পর বলছেলবে না। তার স্বাভাবিক হতে কিছুদিন সময় লাগবে। রাজৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিয়াউল মোর্শেদ গণমাধ্যমকে বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ব্লু  হোয়েল গেম সম্পর্কে বাবা-মাকে সতর্ক হতে হবে। তাদের সন্তানরা যেন এই খেলায় মগ্ন না হয়।   আর/এআর

রংপুরে পিকআপ-ট্রাক সংঘর্ষ, নিহত ২

রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলায় পিকআপ ভ্যান ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও চারজন। আজ সোমবার ভোর সোয়া ৪টার দিকে ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের জায়গীরহাট বাসস্ট্যান্ডে এ দুর্ঘটনা ঘটে। বড়দরগা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ওসি হাফিজুর রহমান বলেন, নিহতদের তাৎক্ষণিকভাবে পরিচয় জানা যায়নি। তবে তারা একজন নারী ও একজন পুরুষ বলে জানান তিনি। হতাহতরা সবাই পিকআপের যাত্রী ছিলেন। হাফিজুর রহমান জানান, আট-দশজন যাত্রী নিয়ে পিকআপ ভ্যানটি রংপুর থেকে বগুড়া যাচ্ছিল। পথে বিপরীতমুখী একটি সারবোঝাই ট্রাকের সঙ্গে সংঘর্ষ হলে ঘটনাস্থলেই দু’জন মারা যান। আহত চারজনকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। /আর/এআর

কারেন্ট জালে ধরা ৪৬ কেজির বাঘাইড়

লালমনিরহাটে ধরা পড়েছে ৪৬ কেজি ওজনের বিশাল একটি বাঘাইড় মাছ। বৃহস্পতিবার সকালে জেলার হাতীবান্ধা উপজেলায় তিস্তা নদীর সেচ ক্যানেল থেকে বিশাল বাঘাইড় মাছটি জেলেদের জালে ধরা পড়ে। মাছটি পরে ৩৯ হাজার টাকায় বিক্রি হয়। স্থানীয়রা জানান, তিস্তা ব্যারাজের সেচ ক্যানেলে আশ্রয় নেয়া জেলে আলম মিয়া (৩৫) সেচ ক্যানেলে কারেন্ট জাল পাতেন। এ সময় বাঘাইড় মাছটি তার জালে আটকে যায়। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় বাঘাইড় মাছটি ধরেন। মাছটি বিক্রয়ের জন্য স্থানীয় সাধুরবাজারে নিয়ে এলে বাজারের উৎসুখ মানুষ মাছটি একনজর দেখার জন্য ভিড় জমান। লালমনিরহাটের আনসার কমান্ডার আব্দুল খালেক বলেন, তিস্তায় বিশাল বাঘাইড় মাছ ধরা পড়ার কথা শুনে কিনতে এসেছি। ৪৬ কেজি ওজনের মাছটি ৩৯ হাজার টাকায় কিনেছি। আলম মিয়া বলেন, গত বন্যায় তিস্তা নদীতে বাড়ি ঘর হারিয়ে ব্যারাজের সেচ ক্যানেলের পাশে আশ্রয় নিয়েছি। অন্য কোন কাজ না থাকায় প্রতিদিন নদীতে মাছ ধরে সংসার চালাই। আজ বাঘাইড় মাছটি পেয়ে খুব ভাল লাগছে। তিনি বলেন, এই টাকা দিয়ে এবার ঘর নির্মাণ করবো।   /আর/এআর

বন্যার্তদের মাঝে আইসিএমএবি শিক্ষার্থীদের ত্রাণ বিতরণ

দেশের উত্তরাঞ্চলের বানভাসী মানুষের মাঝে খাবার, ওষুধ ও বস্ত্র বিতরণ করেছে দ্য ইনস্টিটিউট অব কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্ট্যান্টস অব বাংলাদেশের (আইসিএমএবি) শিক্ষার্থীরা। ১৮ সেপ্টেম্বর কুড়িগ্রাম জেলার, রৌমারী উপজেলার কাশিয়ারচরে প্রায় ছয় শতাধিক বন্যার্তদের মাঝে এই ত্রাণ বিতরণ করা হয়। ইনস্টিটিউটের একদল শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও সদস্যদের সহযোগিতায় ত্রাণ বিতরণ কাজে অংশ নেন আইসিএমএবি ছাত্র ইউনিয়নের আহ্বায়ক আব্দুল্লাহ আল মামুন, শিক্ষার্থী মাহেদি আলম, মারফি প্রমুখ। এ বিষয়ে আব্দুল্লাহ আল মামুন একুশে টেলিভিশন (ইটিভি) অনলাইনকে বলেন, ‘সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে আইসিএমএবির শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন সমাজ সেবামূলক কাজে অংশ নিয়ে থাকেন। বিশেষ করে রক্তদান কর্মসূচী, শীত বস্ত্র বিতরণ, অসুস্থ রোগীর জন্য তহবিল সংগ্রহ, গরীব ও মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য আর্থিক সহায়তা দেওয়ার কাজটি নিয়মিত করে আসছেন। এরই ধারাবাহিকতায় এবার বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হয়।’ এর আগে ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থীরা সহপাঠী, শিক্ষক ও ইনস্টিটিউটের সদস্যদের কাছ থেকে ত্রাণ সংগ্রহ করে। //এআর

সৈয়দপুরে দুই ট্রাকের সংঘর্ষে নিহত ৩

নীলফামারীর সৈয়দপুরে দুটি ট্রাকের সংঘর্ষে তিন জন নিহত হয়েছেন। সোমবার ভোর রাতে বাইপাস সড়কের ধলাগাছ মতির মোড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- ট্রাকচালক মো. দুলাল, চালকের সহকারী মো. আতিকুল। অপর জনের নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি। পুলিশ জানায়, ধলাগাছ মতির মোড়ে একটি বিকল ট্রাক মেরামত করছিল চালক ও হেলপার। এ সময় ট্রাকটিকে পিছন দিক থেকে আসা অপর একটি ট্রাক ধাক্কা দেয়। এতে দুই ট্রাক রাস্তার ধারে খাদে পড়ে। দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলে তিন জন মারা যান। পরে পুলিশ ঘটনাস্থালে গিয়ে লাশগুলো উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। সৈয়দপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. জাহাঙ্গীর গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।//এআর

পঞ্চগড়ে স্কুল জাতীয়করণের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ

পঞ্চগড় জেলার বোদা পাইলট মডেল স্কুল এন্ড কলেজ জাতীয়করণের দাবিতে পঞ্চগড়-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত পঞ্চগড়-ঢাকা মহাসড়কের বোদা বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন মহাসড়কে এই অবরোধ কর্মসূচি পালন করে প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। এদিন অবরোধের কারণে মহাসড়কে এক ঘণ্টা সকল প্রকার যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল। এর ফলে মহাসড়কের দুই পাশে শত শত যানবাহন আটকা পড়ে। দুর্ভোগে পড়ে যাত্রীসহ পথচারীরাও। গত সোমবার থেকে টানা ৩ দিনব্যাপী মানববন্ধন বিক্ষোভ ও অবরোধ কর্মসূচি পালন করে আসছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি। আজ অবরোধের পাশাপাশি আগামী রোববার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত টানা ২ ঘণ্টা ক্লাস বর্জন ও কর্মবিরতি পালনের ঘোষণা দেন সংশ্লিষ্টরা। অবরোধে শেষে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য দেন স্কুল জাতীয়করণ সংগ্রাম কমিটির আহবায়ক ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট ওয়াহিদুজ্জামান সুজা, প্রবীণ বিএনপি নেতা ও সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আব্দুল আজিজ, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান শামসুজ্জোহা, ওয়ালিউল ইসলাম মন্টু, বোদা বাজার বণিক সমিতির সভাপতি মো. আজাহার আলী, সাধারণ সম্পাদক আকতার হোসেন হাসান, আওয়ামী লীগ নেতা মকলেছার রহমান জিল্লুর, আব্দুর রউফ, শিক্ষক মোশাররফ হোসেন প্রমুখ। আর/ডব্লিউএন

চালু হয়েছে লালমনিরহাট-বুড়িমারী ট্রেন চলাচল

বন্যায় লাইন ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে ১৬ দিন বন্ধ থাকার পর বুড়িমারী-লালমনিরহাট ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে। লাইন মেরামত শেষে মঙ্গলবার থেকে আবার ট্রেন চলাচল শুরু হয়। হাতীবান্ধা রেলস্টেশনের মাস্টার নূরন্নবী জানান, বন্যায় পানির প্রবল স্রোতের কারণে গত ১২ অগাস্ট লালমনিরহাট-বুড়িমারী রেলপথের হাতীবান্ধা স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় ১০৫ ফুট রেললাইন ভেঙে যায়। পরদিন সকাল থেকে এই রেলপথে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। তিনি জানান, গত ১৬ দিন লালমনিরহাট থেকে ভোটমারী স্টেশন পর্যন্ত ট্রেন চলাচল করলেও ভোটমারী থেকে বুড়িমারী স্থলবন্দর স্টেশন পর্যন্ত ট্রেন যেতে পারেনি। পানি কমায় ক্ষতিগ্রস্ত লাইন মেরামত শেষে মঙ্গলবার আবার ট্রেন চলাচল শুরু হল।আর/টিকে

© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি