ঢাকা, শনিবার   ২৩ জানুয়ারি ২০২১, || মাঘ ৯ ১৪২৭

অবশেষে ক্ষমা প্রার্থনা করলেন সাকিব

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২০:৩৪, ১৬ নভেম্বর ২০২০

সাকিব আল হাসান

সাকিব আল হাসান

বিশ্বসেরা অলরাউণ্ডার সাকিব আল হাসান। সম্প্রতি এক বছরের নিষেধাজ্ঞা শেষে ফিরতে না ফিরতেই ফের বিতর্কের মুখোমুখি তিনি। গত ১২ নভেম্বর কলকাতায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে সাকিব পূজার উদ্বোধন করেছেন- এমন গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়লে দেশ সেরা এই ক্রিকেটারকে নিয়ে দেশব্যাপী সৃষ্টি হয় মিশ্র প্রতিক্রিয়া। অবশেষে এই ইস্যুতে মুখ খুলেছেন সাকিব। চাইলেন ক্ষমাও।

আজ সোমবার এক ফেসবুক লাইভে সাকিব বলেন- ‘প্রথমেই বলতে চাই, আমি নিজেকে একজন গর্বিত মুসলমান হিসেবে মনে করি। আমি সেটাই চেষ্টা করি পালন করার। ভুলত্রুটি হবেই, ভুলত্রুটি নিয়েই আমরা জীবনে চলাচল করি। আমার কোনও ভুল হয়ে থাকলে অবশ্যই আমি আপনাদের কাছে ক্ষমাপ্রার্থনা করছি। নিউজ কিংবা সোশ্যাল মিডিয়া- সবখানেই এসেছে, আমি নাকি পূজার উদ্বোধন করতে গিয়েছি। আমি কখনোই পূজার উদ্বোধন করিনি বা উদ্বোধন করতে যাইনি।’

সাকিব বলেন, ‘এটার প্রমাণ আপনারা অবশ্যই পাবেন। অনেক সাংবাদিক ভাই-বোনেরা ওখানে ছিলেন। আপনারা ইনভাইটেশন কার্ডও যদি দেখেন, ওখানেই লেখা আছে- কে উদ্বোধন করেছেন। যেখানে আমাদের অনুষ্ঠান হয়েছে, সেটি পূজা মণ্ডপও ছিল না। পাশে আরেকটি মঞ্চ ছিল। সেখানে অনুষ্ঠান করা হয়েছিল। পুরো অনুষ্ঠান সেখানেই হয়। প্রায় ৪০-৪৫ মিনিটব্যাপী অনুষ্ঠানে আমি ছিলাম এবং সেখানে কোনো ধর্ম-বর্ণ নিয়ে কোনও কথা হয়নি।’

টাইগার এই বিশ্ব তারকা বলেন, ‘অনুষ্ঠান শেষে যখন গাড়িতে উঠব, যেহেতু পাশেই পূজার আয়োজন ছিল, অনেক রাস্তা বন্ধ ছিল। স্বাভাবিকভাবে মণ্ডপ পেরিয়ে আমাকে যেতে হতো। যাওয়ার সময় পরেশ দা, যিনি আমাকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন, তার আমন্ত্রণে আমি প্রদীপ প্রজ্বলন করি।

সাকিব বলেন, ‘সাংবাদিকরা অনেক উৎসুক ছিল। সবার অনুরোধে প্রদীপ প্রজ্বলনের সময় সেখানে পরেশ দা’র সাথে দাঁড়িয়ে একটি ছবি তোলা হয়। ছবি তুলে যাওয়ার সময় সাংবাদিকদের সাথে আমার নিরাপত্তাকর্মীদের একটু বাকবিতণ্ডা, হাতাহাতিও হয়। সেই ঘটনায় আমরা অদিক দিয়ে আর যেতে পারিনি। পরে ফিরে অন্য রাস্তা দিয়ে যাই। পুরো ঘটনাটা এরকম ছিল।’

ফেসবুক লাইভে তিনি আরও বলেন, ‘দুই মিনিট আমি যে পূজামণ্ডপে ছিলাম সেটা নিয়েই সবাই কথা বলছেন। তারা ধারণা করছে- আমি পূজার উদ্বোধন করেছি। যেটা আমি কখনোই করিনি এবং একজন সচেতন মুসলমান হিসেবে করব না। তারপরও হয়ত ওখানে যাওয়াটাই আমার ঠিক হয়নি। সেটা যদি আপনারা মনে করে থাকেন, অবশ্যই আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত, ক্ষমাপ্রার্থী এবং আমি মনে করি এটা আপনারা ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। এবং ভবিষ্যতে আমি এরকম কোনও ঘটনার যেন পুনরাবৃত্তি না হয় সেই চেষ্টাও করবো।’

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি